এ.কে. এম রিদওয়ানুল করিম:
রাত নেই, দিন নেই। তিনি ছুটে চলেছেন অবিরাম ত্রাণ সহায়তা নিয়ে মানুষের দুয়ারে দুয়ারে। তার ত্রাণ সহায়তা থেকে ত্রাণ প্রয়োজন এমন কোন পরিবারই বাদ যাচ্ছেনা। কি গরীব-দুঃস্থ, কি নিম্ন বিত্ত, কি নিম্ন মধ্য বিত্ত করোনার কারণে যারাই অসহায় হয়ে পরছেন এমন সকল পরিবারের কাছে খাবার সহায়তা পৌঁছে দিচ্ছেন তিনি। করোনা দুর্যোগের এই সময়ে তিনিই হয়ে উঠেছেন কুতুবদিয়াবাসীর আশ্রয়স্থল। তারই ধারাবাহিকতায় এবার
কুতুবদিয়া মহিলা কলেজের শিক্ষক কর্মচারীদের উপহার সামগ্রী প্রদান করেন কুতুবদিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ জিয়াউল হক মীর।

৬ এপ্রিল ২০২০ তারিখ দুপুরে উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয়। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, সহকারী কমিশনার ভূমি ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ হেলাল চৌধুরী , কলেজ শিক্ষক ও কর্মচারী বৃন্দ।

করোনার কারনে কক্সবাজারের দ্বীপ উপজেলা কুতুবদিয়ায় লকডাউন পালিত হচ্ছে। ননএমপিও ভুক্ত কুতুবদিয়া মহিলা কলেজের শিক্ষক, কর্মচারী মধ্যবিত্ত পরিবার লোকলজ্জার ভয়ে কারো কাছে কিছু চাইতে বা খুঁজতে পারে না এমন ব্যক্তি বা পরিবারের কথা চিন্থা করে কুতুবদিয়া উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে উপহার সামগ্রী প্রদান করা হয় । যাহা এই দূর্যোগের সময় তাদের জন্য বড় পাওয়া বলে মনে করেন সচেতন মহল।

এছাড়া আজ আরো অনেক অসহায় গরীব ঘর বন্ধি কর্মহীন পরিবারের মাঝে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে খাদ্য সামগ্রী বাড়ি বাড়ি বিতরণ করা হয়েছে বলেও জানা যায়।

এ ব্যাপারে কুতুবদিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার মোঃ জিয়াউল হক মীর বলেন, করোনা ভাইরাস সংক্রমণ প্রতিরোধে লকডাউনের কারণে প্রাতিষ্ঠানিক বেতনে চাকরিরত কুতুবদিয়া মহিলা কলেজের শিক্ষক কর্মচারীরা বেকার হয়ে পড়ে। এসব মধ্যবিত্ত পরিবারের লোকজন লোকলজ্জার ভয়েও কারো নিকট কিছু চাইতে পারে না। তাদের কথা চিন্তা করে কুতুবদিয়া উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ হতে উপহার সামগ্রী সম্মানিত শিক্ষক ও কর্মচারীদের প্রদান করা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •