আবুল কালাম, চট্টগ্রাম :

চট্টগ্রাম মহানগরীর পশ্চিম বাকলিয়ার এক কলেজ শিক্ষকের বাসায় গত ১৮ এপ্রিল ঘটে যাওয়া চাঞ্চল্যকর চুরির ঘটনায় চোর চক্রের দলনেতাসহ ৪ সদস্যকে দ্রুততম সময়ের মধ্যে গ্রেফতার ও চোরাই মালামাল উদ্ধার করেছে বাকলিয়া থানার চৌকস অফিসারগন।

করোনা ভাইরাস এর এই দুঃসময়ে দক্ষিণ বিভাগের এরকম সাফল্যে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের মাননীয় পুলিশ কমিশনার জনাব মোঃ মাহাবুবর রহমান বিপিএম, পিপিএম মহোদয় অদ্য দুপুর ২টায় উল্লেখিত অভিযানে নেতৃত্বদানকারী উপ-পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ) জনাব এসএম মেহেদী হাসান, বিপিএম (বার), পিপিএম (বার); অতিঃ উপ-পুলিশ কমিশনার (দক্ষিণ-প্রশাসন) জনাব পংকজ বড়ুয়া; সহকারী পুলিশ কমিশনার (চকবাজার)জনাব মুহাম্মদ রাইসুল ইসলাম সহ অফিসার ইনচার্জ, বাকলিয়া থানা জনাব মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন, বিপিএম ও টিম বাকলিয়াকে পুরষ্কৃত করেন।

উল্লেখ্য যে, গত ১৮/০৪/২০২০খ্রিঃ তারিখ বিকাল অনুমান ০৪.৩০ ঘটিকায় বাকলিয়া থানাধীন বেদার হোসেনের বাড়ি, হাজী ইমাম শরীফ লেইন, ৬০৩-হোসাইন ম্যানশন, ৩য় তলা, ডিসি রোড, পশ্চিম বাকলিয়ার জনৈক কলেজ শিক্ষক- জনাব হুমায়ুন কবির এর ভাড়া বাসায় চাঞ্চল্যকরএই চুরির ঘটনা ঘটে এবং চুরির ঘটনায় কলেজ শিক্ষক হুমায়ুন কবীর বাদী হয়ে বাকলিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন( মামলা নং-১১, তাং-২২/০৪/২০২০ খ্রিঃ, ধারা-৪৫৪/৩৮০ পেনাল কোড)।

পরবর্তীতে রুজুকৃত মামলার চুরির ঘটনার রহস্য উদঘাটন সহ চোর চক্র গ্রেফতার ও চোরাই মালামাল উদ্ধারের লক্ষ্যে উপ-পুলিশ কমিশনার( দক্ষিণ) এসএম মেহেদী হাসান, বিপিএম (বার), পিপিএম (বার) মহোদয়ের সার্বিক তত্ত্বাবধানে অতিঃ উপ-পুলিশ কমিশনার জনাব পংকজ বড়ুয়া এর নেতৃত্বে সহকারী পুলিশ কমিশনার (চকবাজার জোন ) জনাব মুহাম্মদ রাইসুল ইসলাম ও অফিসার ইনচার্জ, বাকলিয়া থানা জনাব মোহাম্মদ নেজাম উদ্দিন, বিপিএম সহায়তায় বাকলিয়া থানার চৌকস অফিসার গন তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় নগরীর বিভিন্ন স্থানে অভিযান পরিচালনা করে গত ০২/০৫/২০২০খ্রীঃ গভীর রাতে ঘটনার সাথে জড়িত সক্রিয় চোর চক্রের ০৪ সদস্যকে গ্রেফতার করেন। তাদের কাছ থেকে চোরাইকৃত ০৭ ভরি স্বর্ণালংকার, ল্যাপটপ ও চোরাই কাজে ব্যবহৃত সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়।গতকাল তাদেরকে আদালতে সোপর্দ করা হলে আদালতে তারা এ ঘটনার সাথে জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •