শাহেদ মিজান, সিবিএন:

দ্বীপ উপজেলা কুতুবদিয়ায় সুদের লভ্যাংশের টাকা সময় মতো না দেয়ায় বজল করিম (৪৫) নামে এক ব্যক্তিকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়েছে। সোমবার (৪ মে) সকাল ৮টার দিকে উপজেলার আলী আকবার ডেইল ইউনিয়নের হাটখোলা এলাকা এই ঘটনা ঘটে।

নিহত বজল করিম এই এলাকার মৃত ছাবের আহমদের পুত্র। এই ঘটনায় মহিলাসহ চারজনকে আটক করা হয়েছে। কুতুবদিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিদারুল ফেরদৌস এই তথ্য জানান।

নিহত বজল করিমের পরিবারের বরাত দিয়ে ওসি জানান, ওই এলাকার মোতালেবের পুত্র শাহাব উদ্দীন থেকে মাসে ৫০০ টাকা সুদে ৫ হাজার টাকা ঋণ নিয়েছিলো নিহত বজল করিম। দুই মাসের মধ্যে প্রথম মাসের সুদের টাকা সময় মতো পরিশোধ করেছিলো। কিন্তু করোনার প্রভাবে অভাবে কারণে এপ্রিল মাসের সুদের দিতে শোধ করতে পারেনি বজল করিম। এই নিয়ে আজ ৪ মে উভয়ের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে মারামারি হয়। মারামারিতে শাহাব উদ্দীন, তার পিতা মোতালেবসহ অন্যান্যরা মোতালেবকে লাঠি দিয়ে বজলকে বেদম প্রহার করে। এতে তিনি গুরুতর আহত হয়। আহত অবস্থায় তাকে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি দিদারুল ফেরদৌস বলেন, ঘটনার সাথে সাথে পুলিশ অভিযান চালিয়ে হামলার মুলহোতা শাহাব উদ্দীন, তার মা পুতিনা বেগম, ভাই আলা উদ্দীন ও ভগ্নিপতি ফয়েজকে আটক করেছে। নিহতের লাশ ময়না তদন্তের জন্য মর্গে প্রেরণ করা হেেয়ছে। মামলার প্রক্রিয়া চলছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •