খলিল চৌধুরী, সৌদি আরব:
সৌদি আরবে মক্কা-মদিনা, জেদ্দা, দাম্মাম ও রাজধানী রিয়াদে গত চার দিন ব্যবধানে করোনা ও হ্নদয়রোগে আরও ১৪ বাংলাদেশি রেমিটেন্সযোদ্ধার মৃত্যু হয়েছে।

এরা হলেন- মাওলানা মুসলিম উদ্দিন, মোহাম্মদ মহিন, মনজুর আলম সওদাগর, মিজানুর রহমার, মোঃ নাছির উদ্দিন, শফিকুল ইসলাম সোহেল, লোকমান আহমদ, আবু শামা ছিদ্দিক আহমদ, মাওলানা আবুল কাসেম, ফোরকান আহমদ, মোঃ লিয়াকত আলী, মোহাম্মদ রফিক ড্রাইভার ও হাজ্বী মোহাম্মদ সেলিম মিয়া।

এদিকে, সৌদি আরবে বেড়ে চলছে মহামারি মরণব্যধি রোগ করোনা রোগির সংখ্যা। অন্যদিকে করোনা অথবা হ্নদয়রোগে আক্রান্ত নিজ বাসা বা হাসপাতালে প্রতিদিন মারা যাচ্ছে প্রবাসী বাংলাদেশি রেমিটেন্সযোদ্ধারা।

রবিবার (৩ মে) সৌদিতে নতুন করে করোনা আক্রান্ত সর্বোচ্চ সংখ্যা ১৫৫২ জন।

গত চার দিনে যারা মারা গেলেন তাদের সংক্ষপ্তি পরিচিতি:
করোনায় আক্রান্ত হয়ে মদিনা ওহুদ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মোঃ লিয়াকত আলী। তার বাড়ী কুমিল্লা চৌদ্দগ্রাম উপজেলার চৌদ্দগ্রাম পৌরসভা ১ নং ওয়ার্ড়ের নবগ্রামে।
মক্কার কিং ফয়সালা হাসপাতালে চিকিৎসা অবস্থায় মারা যান মোঃ ফোরকান আহমদ। তার বাড়ী কক্সবাজার জেলার সদর উপজেলার ইসলামাবাদ ইউনিয়নের বোলায়খালী সাত জুলাকাটা গ্রামের লাল মোহাম্মদ পুত্র।
মক্কা নগরীর নুর হাসপাতাল চিকিৎসাধীন অবস্থায় মাওলানা মোসলিম উদ্দিন মারা যান।
রাজধানী রিয়াদে নিজ বাসায় স্ট্রোক করে মারা যান মোহাম্মদ মহিন।
মক্কা নগরীর নিজ বাসায় স্ট্রোক করে মারা যান মনজুর আলম সওদাগর। তার বাড়ী কক্সবাজার জেলার চকরিয়া।
করোনায় মদিনার একটি হাসপাতাল মারা যান মোঃ নাছির উদ্দিন। তার বাড়ী কুমিল্লা জেলার বরুরা গ্রামে।
ব্রেইন স্ট্রোক করে মারা যান মোহাম্মদ লোকমান হাকিম। তার বাড়ী চট্টগ্রামের সাতকানিয়া উপজেলার কেওচিয়া ইউনিয়নের বুছির পাড়া।
জেদ্দায় নিজ বাসায় স্ট্রোক করে মারা যান শফিকুল ইসলাম সোহেল।
দাম্মামে নিজ বাসায় স্ট্রোক করে মোহাম্মদ সেলিম মিয়া মারা যান।
মক্কা নগরীর আল হেরা হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান আবু শামা ছিদ্দিক আহমদ। তার বাড়ী কক্সবাজার জেলায়।
জ্বর ও সর্দিকাশিতে আক্রান্ত হয়ে মক্কার একটি হাসপাতাল মারা যান মোহাম্মদ রফিক ড্রাইভার। তার বাড়ী কক্সবাজার জেলার চকরিয়া।
বাকী দু’জনের নাম ও ঠিকানা এখনো পাওয়া যায়নি।
৩ মে সবশেষ তথ্য অনুযায়ী গত ২৪ ঘণ্টায় সৌদি আরবে নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৫৫২জন।
মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২৭০১১জন। মারা গেছে ৮জন, এই নিয়ে দেশটিতে মৃত্যের সংখ্যা দাঁড়িয়েছেন ১৮৪জনে।
অন্যদিকে সুস্থ হয়েছেন ৩৭১জন, দেশটিতে সর্বমোট সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ৪১৩৪জন। -খবরটি নিশ্চিত করেছে সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •