মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে আউটডোরে সাধারণ রোগী দেখতে চিকিৎসকদের নিরাপত্তার জন্য ‘ডক্টরর্স সেফটি চেম্বার’ স্থাপন করা হচ্ছে। করোনা ভাইরাস সংক্রামণ প্রতিরোধে ও সংকটে পড়া মানুষদের সাহায্যার্থে গঠিত ‘কক্সবাজার করোনা সহয়তা তহবিল’ এই দৃষ্টান্তমূলক মানবিক কাজটি করার উদ্যোগ নিয়েছে।

বিষয়টি ‘কক্সবাজার করোনা সহয়তা তহবিল’ এর প্রধান উদ্যোক্তা কক্সবাজার জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোহাম্মদ ইকবাল হোসাইন সিবিএন-কে জানিয়েছেন। তিনি জানান, আগামী ২/৩ দিনের মধ্যে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ‘ডক্টরর্স সেফটি চেম্বার’ স্থাপন করা হবে।

‘ডক্টরর্স সেফটি চেম্বার’ এ বসে চিকিৎসকেরা অত্যন্ত নিরাপদে ও নির্ভয়ে আউটডোরে করোনা ভাইরাস রোগী ব্যতীত অন্যান্য সকল রোগী অনায়াসে দেখে ব্যবস্থাপত্র ও ইন্টারকমে প্রয়োজনীয় পরামর্শ দিতে পারবেন। এতে রোগীও নিরাপদে থাকবেন বলে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোহাম্মদ ইকবাল হোসাইন আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন। এই ‘ডক্টরর্স সেফটি চেম্বার’ টি নির্মাণ, স্থাপন ইত্যাদিতে অর্ধ্ব লক্ষাধিক টাকা ব্যয় হচ্ছে বলে তিনি জানান।

এ বিষয়ে কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালের তত্বাবধায়ক ও উপপরিচালক ডা. মোঃ মহিউদ্দিন জানান, করোনা সহায়তা তহবিল এর উদ্যোগে বর্হিবিভাগের রোগী দেখার জন্য ‘ডক্টরর্স সেফটি চেম্বার’ স্থাপনের বিষয়টি নিঃসন্দেহে একটি সুখকর সংবাদ। তিনি বলেন, ‘ডক্টরর্স সেফটি চেম্বার’ এর কারণে চিকিৎসক এবং রোগী উভয়ে নিরাপদ ও স্বস্তিতে থাকবে। উপ পরিচালক ডা. মোঃ মহিউদ্দিন কক্সবাজার জেলা সদর হাসপাতালে ‘ডক্টরর্স সেফটি চেম্বার’ স্থাপনকারী সংগঠন ‘করোনা সহায়তা তহবিল’ এর প্রধান উদ্যোক্তা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোহাম্মদ ইকবাল হোসাইন সহ সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক ধন্যবাদ জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •