মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

টেকনাফ সমুদ্র উপকূল থেকে গত ১৮ এপ্রিল উদ্ধার করা ৩৯৬ জন রোহিঙ্গা শরনার্থীর প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারান্টাইন পিরিয়ড শেষ হওয়ায় তাদেরকে নিজ নিজ ক্যাম্পে পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে। গত ২ মে থেকে পাঠানোর এই প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে।

কক্সবাজারের শরনার্থী ত্রাণ ও প্রত্যাবাসন কমিশনার (আরআরআরসি) মোঃ মাহবুব আলম তালুকদার সিবিএন-কে এ তথ্য জানিয়েছেন।

তিনি আরো জানান, এরা সকলেই বিভিন্ন রোহিঙ্গা শরনার্থী ক্যাম্পের রেজিস্ট্রাড রোহিঙ্গা। ক্যাম্প থেকে পালিয়ে দালালের মাধ্যমে সাগরপথে ট্রলারে করে মালয়েশিয়া যাওয়ার জন্য গিয়েছিল। পরে ব্যর্থ হয়ে তারা ফেরত আসে। এদেরকে উখিয়ার রাবারবাগান ট্রানজিট পয়েন্ট ও টেকনাফের কেরুনতলী ট্রানজিট পয়েন্টে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারান্টাইনে রাখা হয়েছিলো। কোয়ারান্টাইন পিরিয়ডে এসব রোহিঙ্গা শরনার্থীর কেউ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়নি। তাদের মধ্যে যারা একটু অসুস্থ ছিলো এরকম ৯ জনের স্যাম্পল কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ল্যাবে টেস্ট করে রিপোর্ট ‘নেগেটিভ’ পাওয়া গেছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •