মোঃ জয়নাল আবেদীন টুক্কুঃ

বান্দরবানের নাইক্ষ্যংছড়ি সোনালী ব্যাংক শাখায় করোনা শনাক্ত হওয়া এক নারী লেনদেন করায় স্থানীয় সোনালী ব্যাংকের ৯ কর্মকর্তা-কর্মচারীরসহ ১ চিকিৎসকের নমুনা রিপোর্ট নেগেটিভের খবর পাওয়া গেছে। বিষয়টি শনিবার (২ মে) বিকেলে নিশ্চিত করেছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার সাদিয়া আফরিন কচি।

তিনি বলেন, গত সোমবার (২৭ এপ্রিল) এক নারীর করোনা শনাক্তের পর বুধবার (২৯ এপ্রিল) সন্ধ্যায় এ ব্যাংক লকডাউন করে সকল কার্যক্রম স্থগিতের নির্দেশনা দেওয়া হয়।
পরদিন ৩০ এপ্রিল কর্মকর্তা কর্মচারি ও চিকিৎসকসহ ১০ জনের নমুনা সংগ্রহ করে কক্সবাজার সরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল ল্যাবে পাঠানো হয়। সেই ১০ নমুনার রিপোর্ট নেগেটিভ আসে।
তিনি আরও বলেন, ওই কোভিড-১৯ পজেটিভ সনাক্ত মহিলাটি লেনদেন করতে গত সোমবার ২৬ এপ্রিল সোনালী ব্যাংক নাইক্ষ্যংছড়ি শাখায় গিয়েছিলেন।
খবর পেয়ে আমরা সোনালী ব্যাংক ওই শাখায় সকল কার্যক্রম স্থগিতসহ লকডাউনের নির্দেশনা দিয়েছি যাতে ওখান থেকে আর কেউ আক্রান্ত না হয় এবং ওই শাখার কর্মকর্তাদের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে বলা হয়েছে।
যেহেতু লেনদেনে সংস্পর্শ হওয়ার সন্দেহে সকল কর্মকর্তা কর্মচারীর নমুনা সংগ্রহ রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে।
স্থগিত কার্যক্রম ও লকডাউন কবে নাগাদ শিথিল করা হবে সে বিষয়টি স্বাস্থ্য বিভাগের পরার্মশ সাপেক্ষে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

স্বাস্থ্য বিভাগ সূত্রে জানাযায়, গত ২৬ এপ্রিল সকালে নাইক্ষ্যংছড়ি স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আউটডোরে চিকিৎসা নিতে আসে আক্রান্ত মহিলা জান্নাতুল হাবিবা । তার জ্বর ও সর্দি কাশির কথা জেনে চিকিৎসক বর্তমান করোনা পরিস্থিতির উপসর্গ হিসেবে কোভিড-১৯ নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে পাঠানো হয়। ওই নমুনার রিপোর্ট আসে ২৭ এপ্রিল সন্ধ্যায়।
এই রিপোর্টে দেখা যায় কোভিড-১৯ পজেটিভ। ঐ মহিলার সংস্পর্শে তার পরিবারে আরো তিন জন আক্রান্ত হয়ে। বর্তমানে তারা নাইক্ষ্যছড়ি হাসপালের আইসোলেসনে আছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •