মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

‌করোনা ভাইরাস সংক্রামণকালীন সময়ে ঘরে থাকা মানুষের দ্বোরগোড়ায় চিকিৎসা সেবা পৌঁছে দিতে কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে শনিবার ২ মে থেকে শুরু হচ্ছে মোবাইল হাসপাতালের কার্যক্রম।

শনিবার সকাল ১০ টায় মোবাইল হাসপাতালের কার্যক্রমের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন স্থানীয় সরকার বিভাগের সিনিয়র সচিব ও করোনা সংকটে কক্সবাজার জেলার ত্রাণ কার্যক্রম সহ সার্বিক সমন্বয়কারী হেলালুদ্দীন আহমেদ।

এ বিষয়ে কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহাঃ শাজাহান আলি জানান, কক্সবাজার সদর উপজেলার খুরুস্কুল ইউনিয়নের পালপাড়া থেকে শনিবার ২ মে মোবাইল হাসপাতালের এই উদ্বোধনী কার্যক্রম শুরু হবে। পরবর্তীতে জেলার বিভিন্ন প্রত্যন্ত এলাকায় গিয়ে নাগরিকদের প্রাথমিক চিকিৎসা সেবা পৌঁছে দিতে নিয়মিত কাজ করবে এই মোবাইল হাসপাতাল। এ মোবাইল হাসপাতালের কার্যক্রমের সাথে সম্পৃক্ত রয়েছে স্বেচ্ছায় চিকিৎসা সেবা আগ্রহী একদল চিকিৎসক।

এডিএম মোহাঃ শাজাহান আলি আরো জানান, মোবাইল হাসপাতালের মাধ্যমে চিকিৎসকগণ প্রাথমিক চিকিৎসাসেবা সহ সেবা গ্রহিতাদের চিকিৎসা পরামর্শ প্রদান করবেন। এছাড়া কোন অসুস্থ ব্যক্তির করোনা ভাইরাস এর উপসর্গ পরিলক্ষিত হলে, তার শরীরের স্যাম্পল টেস্ট সহ সার্বিক সহযোগিতা প্রদানে কাজ করবে এই মোবাইল হাসপাতাল। অসহায়, দরিদ্র, অবস্থাপন্ন ও দুস্থ রোগীদের বিনামূল্যে ওষুধও প্রদান করা হবে।

এই ব্যতিক্রমী মোবাইল হাসপাতালের চিকিৎসা সেবা উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত থাকবেন কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেন, পুলিশ সুপার এ.বি.এম মাসুদ হোসেন বিপিএম (বার), জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট সিরাজুল মোস্তফা, কক্সবাজার পৌরসভার মেয়র মুজিবুর রহমান, সিভিল সার্জন ডা. মো. মাহবুবুর রহমান, জেলা বিএমএ’র সাধারণ সম্পাদক ও জেলা স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের সভাপতি ডা. মাহবুবর রহমান সহ কক্সবাজারের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে সরকারি করোনা নির্দেশনা মতো সামাজিক ও শারীরিক দুরত্ব বজায় রেখে উপস্থিত থাকার জন্য কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের পক্ষে এডিএম মোহাঃ শাজাহান আলি অনুরোধ জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, শনিবারে এই প্রথম কক্সবাজার জেলায় মোবাইল হাসপাতালের কার্যক্রম শুরু হচ্ছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •