সংবাদদাতা:
চলমান করোনা ভাইরাসের কারণে পুরো কক্সবাজার লকডাউন হয়ে সব ধরণের ব্যবসা বাণিজ্য এবং প্রতিষ্টান বন্ধ থাকায় মানুষ উপার্জনক্ষম হয়ে পড়েছে।এতে অনেকটা কষ্ট পড়েছেন নিম্নবিক্ত এবং মধ্যবিক্ত পরিবারের লোকজন। এই অবস্থায় ভাড়াটিয়াদের কাছ থেকে এপ্রিল মাসের বাসা ভাড়া না নেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন হাছিনা কামাল নামে এক বাড়ির মালিক। তার এই ঘোষণাকে সাধুবাদ জানিয়েছেন ভাড়াটিয়াসহ সাধারণ মানুষ। হাছিনা কামাল কক্সবাজার সদর মডেল থানা রোডস্থ হোছাইন প্লাজার সত্বাধিকারী।

বৃহস্পতিবার (২৩এপ্রিল) তিনি এ ঘোষণা দেন।মালিক জানান হোছাইন প্লাজায় ৮টি ফ্ল্যাট ও ৬টি দোকান রয়েছে। করোনায় দেশব্যাপি লকডাউনের কারণে, ভাড়াটিয়াদের ব্যবসা বাণিজ্য বন্ধ থাকায় তাদের আয় নেই।তাই মানবিক বিবেচনায় সকল ভাড়াটিয়াদের এপ্রিল মাসের ভাড়া মওকুফের ঘোষণা দিয়েছি।বাড়ির মালিক আরো বলেন ঘরভাড়া পরিশোধ নিয়ে অনেকে চিন্তিত ছিলেন।আমি বর্তমান পরিস্থিতি ও এ সব অসহায় মানুষের কথা চিন্তা করে এক মাসের বাসাভাড়া মওকুফের সিন্ধান্ত নিয়েছি।

হাছিনা কামাল খরুলিয়া ঘাট পাড়ার সৌদি প্রবাসী মৌলভী আবদু ছালামের স্ত্রী। তিনি বর্তমানে স্বামীর সাথে সৌদিয়াতে বসবাস করেন।

কক্সবাজার নাগরিক আন্দোলনের মহাসচিব এইচ এম নজরুল ইসলাম বলেন, থানা রোডের বিউটি ফার্মেসী ভবন নামে পরিচিত হোছাইন প্লাজার মালিক ভাড়াটিয়াদের কাছ থেকে এপ্রিল মাসের ভাড়া না নেওয়ার ঘোষণা দিয়ে যে মানবিকতার পরিচয় দিয়েছে তা অন্য বাড়ির মালিকদের জন্যও শিক্ষনীয় উদাহরণ হতে পারে।

বাড়ির মালিক হাছিনা কামাল আরো বলেন, করোনার কারণে নানা সংকটের মধ্যে পড়েছে মানুষ।এই সময় আমি হোছাইন প্লাজার সকল ভাড়াটিয়াদের পাশে দাঁড়ালাম।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •