মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার জেলা পুলিশ উদ্যোগে লকডাউন (Lockdown) এর কারনে ক্ষতিগ্রস্ত এবং কর্মহীন হয়ে পড়া কক্সবাজার জেলার প্রায় ২০০ মোটর ও পরিবহন শ্রমিকদের পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দেওয়া হয়েছে। বুধবার ২৯ এপ্রিল শ্রমিকদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে এই খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেন, কক্সবাজারের পুলিশ সুপার এ.বি.এম মাসুদ হোসেন, বিপিএম (বার)। এসময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) মোহাম্মদ ইকবাল হোসাইন, সহকারী পুলিশ সুপার (ট্রাফিক) বাবুল চন্দ্র বনিক ও জেলা পুলিশের অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ। এছাড়া দূরবর্তী এলাকার পরিবহন শ্রমিকদের জন্য কক্সবাজার জেলা পুলিশের এই খাদ্য সহায়তা পরিবহনের শ্রমিক নেতৃবৃন্দের মাধ্যমে তাদের বাড়িতে পৌঁছে দেয়া হয়েছে।

এছাড়া মধ্যবিত্ত ও নিন্মবিত্ত শ্রেণি, যারা করোনা সংকট জনিত পরিস্থিতির শিকার হয় অসহায় মানবেতর জীবনযাপন করছে, এধরণের সহস্রাধিক পরিবারের কাছে কক্সবাজার জেলা পুলিশ নিরবে খাদ্য সহায়তা বাড়িতে বাড়িতে পৌঁছে দিয়েছে।

তাছাড়া গত ২৯ মার্চ রাত হতে একটানা গত ৩২ দিন ধরে প্রতি রাতে ২২০ পেকেট হতে ২৮০ পেকেট পর্যন্ত রান্নাকরা খাবার ও বিশুদ্ধ পানির বোতল শহরের ভবঘুরে, এতিম, অসহায়, নিরন্ন, পথশিশু, ছিন্নমূল মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়া হয়। এরকম, প্রায় ৭ হাজার পেকেট খাবার এ পর্যন্ত বিতরণ করা হয়েছে জেলা পুলিশ নারী কল্যান (পুনাক) সমিতির ব্যবস্থাপনায়। যার খরচ কোন সরকারি কিংবা এনজিও’র খাত থেকে নয়, কক্সবাজার জেলা পুলিশের কর্মকর্তাদের ব্যক্তিগতভাবে সংগৃহীত নিজস্ব তহবিল থেকে ব্যয় করা হয়। এ মানবিক কার্যক্রম যতদিন করোনা সংকটের কারণে মানুষ ঘরে থাকবে ততদিন অব্যাহত থাকবে বলে জানিয়েছেন কক্সবাজার জেলা পুলিশের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর) রেজওয়ান আহমেদ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •