মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :
রোববার ২৬ এপ্রিল করোনা রোগী সনাক্ত হওয়া টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মহিলা চিকিৎসক সুস্থ আছেন। করোনা আক্রান্ত মহিলা চিকিৎসক টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আবাসিক কোয়ার্টার ৫-বি’তে সেল্ফ আইসোলেশনে রয়েছেন। বিষয়টি টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. টিটু চন্দ্র শীল সিবিএন-কে জানিয়েছেন।

তিনি আরো জানান, করোনা ভাইরাস আক্রান্ত উক্ত মহিলা চিকিৎসক তার নিজস্ব আগ্রহে টেকনাফ চিকিৎসক কোর্য়াটারে সেল্ফ আইসোলেশনে থেকে টেলি চিকিৎসা নিচ্ছেন। সেল্ফ আইসোলেশন থেকে করোনা রোগী বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকদের সাথে নিয়মিত পরামর্শও করছেন। ২৮ এপ্রিল মঙ্গলবার বিকেল পর্যন্ত উক্ত মহিলা চিকিৎসক করোনা রোগীর শরীরে কোন করোনা ভাইরাস উপসর্গ দেখা দেয়নি বলে জানান, টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা এবং উপজেলা করোনা ভাইরাস সংক্রামণ প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব ডা. টিটু চন্দ্র শীল।

টেকনাফের স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের নিয়মিত নবীন এই চিকিৎসক ডা. নাঈমা সিফাত (২৮) এর স্বামী একজন টেক্সটাইল ইঞ্জিনিয়ার। তাদের একটা শিশু কন্যা সন্তান রয়েছে। ডা. নাঈমা সিফাত চট্টগ্রাম শহরের পাঁচলাইশের বাসিন্দা। তিনি টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়মিত জরুরি বিভাগ ও আউটডোরে রোগী দেখতেন। তিনি ৩৯ তম বিসিএস (স্বাস্থ্য) ক্যাডারের একজন সদস্য। প্রায় ৪ মাস আগে তিনি চাকুরির প্রথম স্টেশন হিসাবে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যোগদান করেন।

গত ২৪ জানুয়ারি টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের ৯ জন চিকিৎসক, ১৬ জন নার্স, ২৮ জন কর্মচারী সহ মোট ৫৩ জনের স্যাম্পল কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ল্যাবে টেস্টের জন্য পাঠানো হলে ২৬ এপ্রিল ডা. নাঈমা সিফাত এর টেস্ট রিপোর্ট ‘পজেটিভ’ পাওয়া যায়।

প্রসঙ্গত, এই ডা. নাঈমা সিফাত হচ্ছেন, কক্সবাজার জেলায় করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত প্রথম চিকিৎসক।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •