জে.জাহেদ,চট্টগ্রাম প্রতিনিধি:

পেপারলেস ব্ল্যাক মার্কেটিং” এর মাধ্যমে নিত্যপ্রয়োজনীয় ভোগ্য খাদ্য পণ্যের দাম যেন অযাচিত ও মাত্রাতিরিক্ত ভাবে বৃদ্ধি করতে না পারে সে বিষয়টি নিয়ন্ত্রণে জেলা প্রশাসক চট্টগ্রাম মোহাম্মদ ইলিয়াস হোসেনের নির্দেশনায় খাতুনগঞ্জ-চাক্তাই, রিয়াজুদ্দিন বাজার, পাহাড়তলী বাজার সহ চট্টগ্রাম মহানগরীর সকল পাইকারি বাজারে জেলা প্রশাসন চট্টগ্রামের ভ্রাম্যমাণ আদালতের আদালতের অভিযান পরিচালনা করেছেন জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ তৌহিদুল ইসলাম।

আজকে সকাল ১১ঃ০০ টা থেকে দুপুর ২ঃ৩০ টা পর্যন্ত এ অভিযান পরিচালনা করা হয়। জেলা প্রশাসন চট্টগ্রামের এ বিশেষ অভিযানে সেনাবাহিনীর টিম এবং সিএমপি সদস্যগণরাও ছিলেন। সেনাবাহিনীর টিম লিডার হিসেবে অভিযানে ছিলেন ক্যাপ্টেন কাফিউন নাহার।

দেশের বৃহত্তম ভোগ্যপণ্যের বাজার খাতুনগঞ্জে পরিচালিত আজকের অভিযানে পান-সুপারির গোডাউনে লুকিয়ে রাখা মিয়ানমার থেকে সম্প্রতি আমদানিকৃত ১২ টন আদার সন্ধান পেয়েছেন জেলা প্রশাসন চট্টগ্রামের ভ্রাম্যমাণ আদালত। ৮৮ বস্তায় রাখা এসব আদা বেশি দামে বিক্রির জন্য মজুদ করা হয়।
মজুদকৃত আদা গুদাম থেকে তাৎক্ষণিকভাবে বের করা হয়। মিয়ানমার থেকে বিগত ২১ শে এপ্রিল আমদানি করা ৮৫ টাকা দামের আদা বিগত ১ সপ্তাহ যাবত মজুদকারী প্রতিষ্ঠান টি ২২০-২৫০ টাকায় বিক্রি করেছে। আদা মজুদদারি এবং অনায্য দামে বিক্রির দায়ে শাহ আমানত ট্রেডার্স নামক প্রতিষ্ঠান কে ১ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। পাশাপাশি ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট জব্দকৃত আদা মজুদকারী প্রতিষ্ঠান শাহ আমানত ট্রেডার্স কে নায্য দামে ১২০ টাকার মধ্যে তাৎক্ষণিক বিক্রির নির্দেশ দেন। সেনাবাহিনীর দায়িত্বরত টিম এবং পুলিশের উপস্থিতিতে বাজারে আগত বিভিন্ন ক্রেতাদের নিকট তাৎক্ষণিকভাবে জব্দকৃত আদা নায্যদামে বিক্রি নিশ্চিত করা হয়।

অভিযানে খাতুনগঞ্জ ভিত্তিক একটি সক্রিয় সিন্ডিকেটকে আইনের আওতায় আনা হয়েছে। এ সিন্ডিকেটের সাথে জড়িত খাতুনগঞ্জের আরো তিন আড়তদারকে অধিক মুনাফায় আদা বিক্রির জন্য ২ লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে।

আড়তদারদের স্বীকারোক্তি মোতোবেক খাতুনগঞ্জের আমির মার্কেট এলাকায় অবস্থিত মেসার্স আজাদ সিন্ডিকেট নামক কৃষিপণ্য আমদানিকারক প্রতিষ্ঠান চট্টগ্রামে “পেপারলেস ব্ল্যাক মার্কেটিং” এর মাধ্যমে আদার মূল্য বৃদ্ধি করছে।

আমদানিকারক এ প্রতিষ্ঠানের সাথে সংশ্লিষ্টরা চট্টগ্রামের খাতুনগঞ্জ থেকে বর্তমানে পলাতক রয়েছে। এ সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে দৃষ্টান্তমূলক পরবর্তী আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •