অনলাইন ডেস্ক : উত্তর কোরিয়ার সর্বোচ্চ নেতা কিম জং উনের মৃত্যুর গুঞ্জন নাকচ করে দিলো দক্ষিণ কোরিয়া। তিনি জীবিত এবং শতভাগ সুস্থ বলে দাবি করেছেন, সিউলের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা মুন চুং-ইন।

মুন চুং-ইন’র মতে, ১৩ এপ্রিল থেকে উত্তর কোরিয়ার উপকূলীয় শহর উনসানে অবস্থান করছেন কিম জং উন। সেখানে অস্বাভাবিক কিছুর ইঙ্গিত পাওয়া যায়নি। ১১ এপ্রিল সর্বশেষ প্রকাশ্যে দেখা যায় কিম জং উনকে। ১৫ এপ্রিল উত্তর কোরিয়ার প্রতিষ্ঠাতা কিম ইল-সাংয়ের জন্মবার্ষিকীর অনুষ্ঠানে ছিলেন না তিনি। দেশের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ এ আয়োজনে তার অনুপস্থিতি থেকে ছড়ায় নানা গুঞ্জন। এর মধ্যেই তার একটি অস্ত্রোপচারের খবর ছড়ায়। শনিবার কিছু পশ্চিমা গণমাধ্যম দাবি করে, মৃত্যু হয়ে থাকতে পারে কিম জং উনের। বিষয়টি নিয়ে বরাবরের মতোই চুপ উত্তর কোরিয়া। তবে, গোয়েন্দা তথ্যের ভিত্তিতে সচরাচর দেশটির খবর দিয়ে থাকে দক্ষিণ কোরিয়া।

বুসান ন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির রাষ্ট্রবিজ্ঞানের অধ্যাপক রবার্ট কেলি বলেন, “হয়তো উত্তরসূরীর প্রশ্নে হয়তো দ্বিধাবিভক্ত পিয়ংইয়ং। কিম জং উনের সন্তানরা অনেক ছোট; দেশের নেতৃত্ব নেয়ার মতো বয়স তাদের হয়নি। সেক্ষেত্রে অনেকটা রাজতন্ত্রধর্মী পরিবারটিতে রক্তের সম্পর্কে কিমের একমাত্র যোগ্য উত্তরসূরী তার বোন। কিন্তু দেশটির বর্তমান সমাজব্যবস্থায় নারীনেতৃত্ব মেনে নেয়ার মতো মানসিকতা গড়ে ওঠেনি বলে তার পক্ষেও দেশ পরিচালনার দায়িত্ব নেয়া সহজ হবে না।”

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •