মো. নুরুল করিম আরমান, লামা
বান্দরবানের লামা ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা অধ্যক্ষ, লাইনঝিরি মোহাম্মদীয়া ইসলামিয়া দাখিল মাদ্রসা ও উপজেলার ১৮টি স্বতন্ত্র এবতেদায়ী মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা দ্বীনি মানুষ গড়ার কারিগর আলহাজ্ব মাওলানা মো. জাফর উল্লাহ (৭৮) মারা গেছেন।

ইন্নালিল্লাহি…রাজিউন।

রবিবার দিনগত রাত ১১টার দিকে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন।

মৃত্যুকালে স্ত্রী, ৪ ছেলে ও ৩ মেয়ে ছিল। মারা যাওয়ার আগ মুহুর্তেও এ গুনি মানুষটি মাদ্রাসার অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করেছেন।

সূত্র জানায়, রবিবার দিনগত রাত সাড়ে ৮টার দিকে মো. জাফর উল্লাহ হৃদরোগে আক্রান্ত হন। স্বজনেরা তাকে দ্রুত উদ্ধার করে প্রথমে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। সেখানে দাযিত্বরত চিকিৎসক তার অবস্থার অবনতি দেখে উন্নত চিকিৎসার জন্য কক্সবাজার সদর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যাওয়ার পরামর্শ দেন। পরে কক্সবাজার সদর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিলে দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। সোমবার সকালে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে মাদ্রাসা মাঠে অনুষ্ঠিত জানাযার পর মাদ্রাসা সংলগ্ন কবরস্থানে মরহুমের লাশ দাফন করা হয়।

অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মো. জাফর উল্ল্যাহ’র প্রচেষ্টায় ১৯৭৬ সালে মাদ্রাসাটি প্রতিষ্ঠা হয়ে ১৯৮৯ সালে আলিম, ১৯৯৫ ফাজিল (স্নাতক) স্তরে উন্নতি ও মাদ্রাসায় ভোকেশনাল শাখা চালু হয়। তৎকালীণ অনগ্রসর লামা উপজেলার নিম্ম আয়ের পরিবারের শিক্ষা বিমুখ সন্তানদের শিক্ষা লাভের অনুকুল পরিবেশ সৃষ্টিতে অধ্যক্ষ জাফর উল্লাহ শুরু থেকে উদার ও আন্তরিকতার পরিচয় দিয়ে আসছেন। শুধু তাই নয়, একদা বাড়ি বাড়ি গিয়ে দরিদ্র পরিবারের ছেলে-মেয়েদের লেখাপড়ার প্রতি আগ্রহ সৃষ্ঠি করেছিলেন তিনি। তার একান্ত প্রচেষ্টায় লেখাপড়া শিখে কর্মজীবনে সুপ্রতিষ্ঠিত হয়েছে হাজার হাজার শিক্ষার্থী।

এ গুনি মানুষটির মৃত্যুতে উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মো. মোস্তফা জামাল, উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান থোয়াইনু অং চৌধুরী, নির্বাহী অফিসার নূর-এ-জান্নাত রুমি, পৌরসভা মেয়র মো. জহিরুল ইসলাম, পৌরসভার সাবেক মেয়র মো. আমির হোসেন, মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার শেখ মাহাবুবুর রহমান, উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বাথোয়াইচিং মার্মা, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি মোহাম্মদ রফিক, সাধারণ সম্পাদক তাজুল ইসলাম, উপজেলা মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও বান্দরবান পার্বত্য জেলা পরিষদের সদস্য ফাতেমা পারুল, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক প্রদীপ কান্তি দাশ, প্রেসক্লাবের সকল সদস্যসহ মাদ্রাসার শিক্ষকরা শোক তন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •