বার্তা পরিবেশক:
চলমান করোনাভাইরাসের কারনে সমগ্রহ কক্সবাজার লকডাউন রয়েছে। এতে অনেকটা কষ্টে পড়েছেন নিম্নবিত্ত ও মধ্যবিত্তপরিবারের সদস্যরা। কক্সবাজার সদরের পিএমখালী ইউনিয়নে অসহায় এসব মানুষদের কথা চিন্তা করে রমজানের নিত্যপণ্য সামগ্রহীসহ ৭৮০ পরিবারের মাঝে খাদ্য সহায়তা দিয়েছেন পিএমখালীর গোলাপাড়ার বাসিন্দা সমাজসেবক মাহাম্মদুল করিম। তার ব্যক্তিগত উদ্যেগে এসব খাদ্য সহায়তা পেয়ে সাময়িক কষ্টে পড়া এসব মানুষ অনেক খুশি হয়েছেন।
তিনি জানান, সরকারের পাশাপাশি এলাকার ব্যবসায়ী কিংবা রাজনৈতিক নেতা যদি চলমান কঠিন এই দুর্যোগে অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়ায় তাহলেই সবচেয়ে কল্যাণময় কাজ।
মাহাম্মদুল করিম বলেন, ‘আমিও এলাকার খেটে খাওয়া মানুষদের কথা চিন্তা করে নিজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের টাকা দিয়ে ৭৮০ পরিবারে চাউল, চনা, মুড়ি, তেল, আদা-রওসনসহ একটি করে খাদ্যের বস্তা দিয়েছি।
তনি বলেন, পিএমখালীর বিভিন্ন এলাকাতে খাদ্য সহায়তা পৌছাতে তিনি আপ্রাণ চেষ্টা করে যাচ্ছেন। ইতিমধ্যে অনেক এলাকায় চলমান এ খাদ্য সহায়তা গেছে।
সমাজসেবক ও ব্যবসায়ী মনে করেন, সমাজের বিত্তবান প্রতিটি মানুষ যদি করোনাভাইরাসের কারনে কষ্টে পড়ে যাওয়া এসব মানুষদের সহায়তায় এগিয়ে আসে তাহলে কেউই না খেয়ে থাকবে না।
মাহাম্মদুল করিম বাংলাবাজার হজরত আয়েশা রহ.মাদ্রাসার পরিচালকের পাশাপাশি মুদির দোকানসহ কয়েকটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের সাথে জড়িত রয়েছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •