সংবাদদাতা:
বৈশ্বিক মহামারি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে সরকারি নিষেধাজ্ঞায় স্থবির হয়ে পড়েছে জনজীবন। বিশেষ করে অসহায় শ্রমজীবী মানুষ বেশ কষ্টে দিন কাটাচ্ছে। অসহায়, শ্রমজীবী ও কর্মহীন এইসব মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছে কক্সবাজারের সেচ্ছাসেবী সংগঠন সেভ দ্যা হিউমিনিটি।

খরুলিয়ার হতদরিদ্র প্রতিবন্ধী রিক্সা চালক রশীদ। তার পরিবারে সত্তরউর্দ্ধো বৃদ্ধ মাতাসহ সদস্য সংখ্যা ৬ জন। রিক্সা চালিয়ে তিনি তার পরিবারে সবার মুখে তুলে দেন অন্য।

দেশ লকডাউন হওয়া সত্বেও প্রতিদিনের মতো প্রতিবন্ধী রিক্সাচালক রিক্সা নিয়ে রোজগারের উদ্দেশ্য বের হন রাস্তায়। সারাদেশে প্রশাসনের ধারাবাহিক অভিযানের অংশ হিসেবে খরুলিয়া স্টেশনে পুলিশ জনসাধারণকে ধাওয়া দিলে প্রতিবন্ধী রশিদ হোচট খেয়ে পড়ে তার এক পা ভেঙ্গে যায়। সেই থেকে তার পরিবারে নেমে আসে চরম বিপর্যয়। সোস্যাল মিডিয়া পেইজবুকের আশির্বাদে তার এই করুন চিত্র দৃষ্টিগোচর হয় কক্সবাজারের স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন ‘সেভ দ্যা হিউমিনিটি ‘ পরিবারের সদস্যদের কাছে।

চলমান COVIDE19 মোকাবেলায় সংগঠনের জরুরী ত্রাণ বিতরণ ফান্ড থেকে চাল, ডাল, পেয়াজ, আলু, তেল সহ রমজানের ইফতার সামগ্রী নিয়ে হাজির হন সদরের ঝিলংজা ইউনিয়ন ৮নং ওয়ার্ড খরুলিয়া ঘাটপাড়ার খেটেখাওয়া প্রতিবন্ধী রিক্সা চালক রশিদের বাড়িতে। ‘সেভ দ্যা হিউমিনিটি কক্সবাজার’ পরিবারের সদস্যরা প্রতিবন্ধী রশিদের হাতে খাদ্যদ্রব্য তুলে দিয়ে তার পরিবারের খোঁজ খবর নেন এবং সমাজের সচ্ছল ও ধনাঢ্য ব্যক্তিদের কাছে এই প্রতিবন্ধী রশিদের পাশে দাড়ানোর আহবান জানান।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •