মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালত এবং চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (সিজেএম) এর অধীন জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত সহ সারাদেশের একই আদালত সমুহ সপ্তাহে ২ দিন খোলা থাকবে। বৃহস্পতিবার ২৩ এপ্রিল বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের রেজিস্ট্রার জেনারেল মোঃ আলী আকবর কর্তৃক ২৭৫২ নাম্বার স্মারকে জারীকৃত এক আদেশে এ কথা জানানো হয়।

উদ্ভুত করোনা ভাইরাস জনিত পরিস্থিতিতে জরুরি জামিন আবদেন শুনানির জন্য কঠোরভাবে সামাজিক ও শারীরিক দুরত্ব বজায় রেখে আদালত পরিচালনা করা হবে বলে আদেশে উল্লেখ করা হয়েছে। জেলা ও দায়রা জজ সংশ্লিষ্ট আইনজীবী সমিতির সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক সহ নির্বাহী কমিটির সাথে আলোচনা করে জেলা ও দায়রা জজ আদালত এবং চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটের অধীনস্থ আদালত প্রতি সপ্তাহে ২ দিন খুব সীমিত আকারে আদালত কার্যক্রম পরিচালনা করা হবে। কারাগারে বন্দী থাকা আসামীদের জামিনও শুনানি করা যাবে। তবে কারাগার থেকে কোন আসামি আদালতে আনা যাবেনা। শুধুমাত্র একজন আইনজীবী আদালতে জামিন আবেদন শুনানি করতে পারবেন। আদালতে কঠোরভাবে সামাজিক ও শারীরিক দুরত্ব বজায় না রাখলে বিচারক আদালতের কার্যক্রম স্থগিত করে দিতে পারবেন। চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট প্রয়োজন মনে করলে তাঁর অধীনস্থ একাধিক জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেটকে দিয়ে আদালত পরিচালনা করতে পারবেন।

এবিষয়ে কক্সবাজার জেলা আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট জিয়া উদ্দিন আহমদ আদেশটি পেয়েছেন বলে জানিয়ে সিবিএন-কে বলেছেন, বিচারক ও আইনজীবীদের সাথে পরামর্শ করে আগামী সপ্তাহে কোন ২ দিন আদালত খোলা রাখা যাবে তা রোববার সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।
একই বিষয়ে কক্সবাজার জেলা ও দায়রা জজ আদালতের প্রশাসনিক কর্মকর্তা এস.এম আব্বাস উদ্দিন বলেন, আগামী ২ দিন শুক্রবার শনিবার হওয়ায় রোববারে জেলা ও দায়রা জজ স্যারের সাথে আলাপ করে আগামী সপ্তাহে সুবিধাজনক ২ দিন আদালত খোলা রাখার নোটিশ জারী করা হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •