মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

বৃহস্পতিবার ২৩ এপ্রিল কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের ল্যাবে স্যাম্পল টেস্টে করোনা ভাইরাস জীবাণু ধরা পড়া টেকনাফের হোয়াইক্ষ্যং ইউনিয়নের খারাইঙ্গাঘোনা গ্রামের মোহাম্মদ ইদ্রিস (৪২) কে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের এর আইসোলেসন ইউনিটে চিকিৎসা সেবা দেওয়ার জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছে। টেকনাফ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবুল মনছুরের নেতৃত্বে একটি টিম করোনা রোগী মোহাম্মদ ইদ্রিসের বাড়িতে গিয়ে এম্বুলেন্স যোগে তাকে নিয়ে আসছে।

টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ও উপজেলা করোনা ভাইরাস সংক্রামণ প্রতিরোধ কমিটির সদস্য সচিব ডা. টিটু চন্দ্র শীল বিষয়টি সিবিএন-কে নিশ্চিত করেছেন।

এই করোনা রোগী তাবলীগে গিয়ে তিন মাস ধরে দেশের বিভিন্ন স্থানে কাজ করে মাত্র ১০ দিন আগে লকডাউন (Lockdown) থাকা অবস্থায় টেকনাফে ফিরে আসে।

করোনা রোগীর বাড়িতে যাওয়া এই টিমে নৌবাহিনীর কমান্ডার নাহিদ, উপজেলা করোনা মেডিকেল টিম, পুলিশও রয়েছেন বলে ডা. টিটু চন্দ্র শীল জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, মোহাম্মদ হোছাইন নামক টেকনাফ উপজেলার
বাহারছড়া মারিশবনিয়া এলাকার অপর একজন করোনা রোগী গত ১৯ এপ্রিল থেকে টেকনাফ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আইসোলেসন ইউনিটে চিকিৎসাধীন রয়েছে।

ডা. টিটু চন্দ্র শীল আরো জানিয়েছেন, শুক্রবার ২৪ এপ্রিল কক্সবাজার সিভিল সার্জন অফিসে সমন্বয় সভা রয়েছে। সে সভার সিদ্ধান্ত অনুযায়ী পরে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত এ ২ জন রোগীকে কোথায় রেখে চিকিৎসা সেবা দেওয়া হবে তা নিশ্চিত হওয়া যাবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •