খলিল চৌধুরী, সৌদি আরব ##
করোনা ভাইরাস বিস্তার প্রতিরোধ অনির্দিষ্টকালের কারফিউ করলেও করোনায় ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে মরুর দেশ সৌদি আরবে।

এখানেও প্রায় প্রতিদিনই আগের দিনের রেকর্ড ভেঙে বাড়ছে মৃত্যু-আক্রান্ত সংখ্যা। দেশটিতে এ পর্যন্ত রেকর্ড করছে।

সৌদিতে গত ২১ এপ্রিল নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১১৪৭ জন। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১১৬৩১ জন। মারা গেছে ৬ জন। এই নিয়ে দেশটিতে মৃত্যুর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১০৯ জনে। সুস্থ হয়েছেন ১৫০জন, দেশটিতে সর্বমোট সুস্থ হয়ে ঘরে ফিরেছেন ১৬৪০জন। তথ্যসূত্রে সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। সৌদিতে করোনায় ১০৯ মৃত্যুর ৩৬ জনই বাংলাদেশি

গত ২১ এপ্রিল সৌদি আরবের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে স্থানীয়সহ বিভিন্ন সংবাদমাধ্যমে এ তথ্য প্রকাশ করা হয়।

মঙ্গলবার দুপুর পর্যন্ত সৌদি আরবের পশ্চিমাঞ্চল জেদ্দায় ৩২ জন এবং পূর্বাঞ্চলে দুইজন ও মক্কা-মদিনায় একজন করে বাংলাদেশি নাগরিক মারা যাওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

দূতাবাস ও কনস্যুলেট থেকে প্রবাসী কল্যাণ মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হালনাগাদ তালিকা থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

বাংলাদেশ দূতাবাস রিয়াদ এবং বাংলাদেশ কনস্যুলেট জেনারেল জেদ্দা থেকে প্রাপ্ত তথ্য অনুযায়ী, সৌদি আরবের বিভিন্ন শহরে করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া বাংলাদেশিরা হলেন -সাভারের কোরবান, নড়াইলের ডাক্তার আফাক হোসেন মোল্লা, ভোলার মোহাম্মদ হোসেন, পাবনার আব্দুল মোতালেব, মানিকগঞ্জের মান্নান মিয়া, নরসিংদীর খোকা মিয়া, বরগুনার রুস্তম খন্দকার, চাঁদপুরের মোহাম্মদ জাহিদ, আজিবর, সাইফ উদ্দিন টুটুল, শেখ মোহাম্মদ আলী, আহমেদ হোসাইন, মোহাম্মদ জমির উদ্দিন, মোহাম্মদ ইসলাম, ঢাকার মো. দেলোয়ার হোসেন, কুমিল্লার মাহবুবুল হক, বরিশালের মো. হারুন ভূঁইয়া, নোয়াখালীর ফিরোজ, চাঁদপুরের সিরাজুল ইসলাম, কক্সবাজারের জিয়াউর রহমান জিয়া, খোরশেদুল আলম, হাজ্বী আমান উল্লাহ, জসিম উদ্দিন, হাফেজ রুহুল আমিন ও মোঃ- জসিম উদ্দিন।

চট্টগ্রামের মোহাম্মদ হাসান, মোহাম্মদ জসিম উদ্দিন, মোহাম্মদ শফিউল আলম, উবায়দুর রহমান চৌধুরী জুয়েল, নাসির উদ্দিন, মোহাম্মদ রহিম উল্লাহ, নুরুল ইসলাম, রাশেদুল আলম তালুকদার, শেখ মোহাম্মদ আলী, আহমদ হোসাইন ও মোঃ- আলাউদ্দন।

এ ছাড়াও সৌদিতে হ্নদয়রোগে আক্রান্ত হয়ে গত দের মাসে নিজ বাসা অথবা হাসপাতালে অনন্ত ৫৭ জন বাংলাদেশি মারা যান।

প্রবাসী বাংলাদেশিসহ বিদেশিদের সৌদির আরবের স্থানীয় আইন মেনে ঘরে থাকার পরামর্শ দিচ্ছে মিশনগুলো। বড় বড় শপিংমলের সামনে করোনা থেকে বাঁচার বিভিন্ন উপায় সংবলিত রোল আপ স্ট্যান্ড লাগানো হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •