শাহেদ মিজান, সিবিএন:

কক্সবাজার সদরের পিএমখালী চেরাংঘর এলাকা থেকে ৪০০ কেজি সরকারি চাল জব্দ করেছে কক্সবাজার সদর মডেল থানা পুলিশ। গোপনে পাচারকালে এলাকাবাসীর সহায়তায় রোববার (১৯ এপ্রিল) ভোর ৬টার দিকে এসব চাল জব্দ করা হয়। অভিযানে নেতৃত্ব দেন কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি (অপারেশন) মাসুম খান।

সত্যতা নিশ্চিত করে থানার ওসি (অপারেশন) মাসুম খান জানান, সরকার নির্ধারিত ১০টাকা মূল্যের সরকারি চাল পাচার করছিলো সরকারি ডিলার ও পিএমখালী ডিকপাড়া এলাকার মৃত হাজী মকবুল আহমদের পুত্র মোহাম্মদ নূর প্রকাশ মাহনুর। খবর পেয়ে স্থানীয় লোকজন পাচার আটকে দেন এবং সাথে সাথে ৯৯৯ কল দেন। ৯৯৯ থেকে কল পেয়ে ওসি (অপারেশন) মাসুম খানের নেতৃত্বে নৈশ টহলরত একদল পুলিশ দ্রত ঘটনাস্থলে যান। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে পালিয়ে যায় ডিলার মোহাম্মদ নূর প্রকাশ মাহনুর ও টমটম চালক পিএমখালী ইউনিয়নের মাইজপাড়া এলাকার মাহমুদ উল্লাহর পুত্র নেয়ামত উল্লাহ। ঘটনাস্থল থেকে ৪০কেজি ওজনের ১০টি মোটা চালের বস্তা পাওয়া যায়। চালগুলো জব্দ করে পুলিশ।

ওসি (অপারেশন) মাসুম খান বলেন, খবর নিয়ে জানা গেছে চালগুলো করোনা দুর্যোগে প্রধামন্ত্রী কর্তৃক বরাদ্দ দেয়া কেজি ১০ টাকা প্রকল্পের চাল। এসব চাল পিএমখালী ইউনিয়নের জন্য বরাদ্দ করা হয়েছিলো। কিন্তু আত্মসাৎ করার জন্য রাতের আঁধারে সরকারি সীলযুক্ত বড় বস্তা থেকে প্লাস্টিকের বস্তায় ভরে টমটমে করে পাচার করছিলো ডিলার মোহাম্মদ নূর প্রকাশ মাহনুর। কিন্তু খবর পেয়ে স্থানীয়রা আটকে দেন। পরে পুলিশ চালগুলো জব্দ করতে সক্ষম হয়।

কক্সবাজার সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহজাহান কবীর বলেন, চাল পাচারের দায়ে ডিলার মোহাম্মদ নূর প্রকাশ মাহনুর ও টমটম চালক নেয়ামত উল্লাহর বিরুদ্ধে থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •