সোয়েব সাঈদ, রামু :

রামুর দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়নের পূর্ব উমখালী গনি সওদাগর পাড়া এলাকায় সন্ত্রাসী হামলায় গুরতর আহত যুবক আবদুল্লাহ মৃত্যুর সাথে লড়ছে। বর্তমানে তিনি কক্সবাজার ইউনিয়ন হাসপাতালের আইসিইউ’তে চিকিৎসাধিন রয়েছেন। আহত আবদুল্লাহ ওই এলাকার মোস্তাক আহমদের ছেলে। এরআগে আবদুল্লাহ চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালেও চিকিৎসাধিন ছিলেন।

আহত আবদুল্লাহর পিতা মোস্তাক আহমদ জানান, পূর্ব শত্রুতার জেরে স্থানীয় একটি চক্র গত ২ এপ্রিল তার ছেলে আবদুল্লাহকে হত্যার উদ্দেশ্যে পরিকল্পিতভাবে হামলা চালায়। হামলাকারিরা দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে তাকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ও পিটিয়ে রক্তাক্ত করে। হামলাকারিরা হলেন, মৃত উম্মত আলীর ছেলে আবু শামা, আবু বক্কর ও আবদুর রহিম, আবু শামার ছেলে নুরুল ইসলাম লাক্কু, আবু বক্করের ছেলে এবাদ উল্লাহ, আবু শামার ছেলে ছাহাদ হোসেন ও জসিম উদ্দিন এবং মোহাম্মদ কালুর ছেলে আবুল ফয়েজ।

হামলার পর আবদুল্লাহকে মুমূর্ষু অবস্থায় প্রথমে কক্সবাজার সদর হাসপাতাল ও পরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সম্প্রতি কক্সবাজারের নিয়ে আসা হলেও হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা সেবা দিতে হচ্ছে। চিকিৎসকরা তাদের জানিয়েছেন, আবদুল্লাহর অবস্থা বর্তমানে সংকটাপন্ন। আবার ব্যয়বহুল চিকিৎসা করাতে গিয়ে ইতোমধ্যে আবদুল্লাহর দরিদ্র পরিবার নিঃস্ব হয়ে পড়েছে।

রামু থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আবুল খায়ের জানিয়েছেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। অভিযুক্তদের আটকের চেষ্টা চলছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •