মোঃ নেজাম উদ্দিনঃ
করোনা পরিস্থিতিতে ত্রাণ হিসেবে রামুর প্রতিটি ইউনিয়নের জন্য ৩০০ কেজি করে তিত করলা বরাদ্দ দিয়েছে উপজেলা প্রশাসন। ইতোমধ্যে ইউপি চেয়ারম্যানরা তাদের বরাদ্দ পেয়ে গেছে।
যা জনগণের ঘরেঘরে পৌঁছিয়ে দিবে সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন পরিষদ।
১৯ এপ্রিল থেকে এই কার্যক্রম শুরু হবে বলে জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) প্রণয় চাকমা।
তিনি জানান, করোনা পরিস্থিতির কারণে সবজি চাষিরা তাদের উৎপাদিত ফসল বাজারে নিয়ে বিক্রি করতে পারছে না। বঞ্চিত হচ্ছে ন্যায্যমূল্য প্রাপ্তি থেকে।
তাই চাষিদের দিক বিবেচনা করে ন্যায্য মূল্যে ক্রয় করে প্রতি ঘরেঘরে তিত করলা বিতরণের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।
এতে করে জনগণের একটি স্বাস্থ্যসম্মত খাবারের নিশ্চয়তা হলো। অন্যদিকে চাষিরাও পেলো তাদের ফসলের ন্যায্য মূল্য।
গর্জনিয়া ইউপি চেয়ারম্যান সৈয়দ নজরুল ইসলাম উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে তিত করলা বিতরণের সংংবাদ জানিয়েছেন।
এই উদ্যোগকে তিনি সময়োপযোগী বলে মন্তব্য করেছেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •