আন্তর্জাতিক ডেস্ক:
ফ্রান্স সামরিক বাহিনীর একটি বিমানবাহী রণতরির ৬ শতাধিক নাবিকের দেহে করোনাভাইরাসের উপস্থিতি শনাক্ত করা হয়েছে। চার্লস ডি গলে নামের ওই নৌযানটি ফ্রান্সের ফ্লাগশিপ এয়ারক্রাফট ক্যারিয়ার। দেশটির সশস্ত্র বাহিনী মন্ত্রণালয় বিবৃতি দিয়ে এই তথ্য জানিয়েছে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন এ নিয়ে একটি অনলাইন প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে। প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, ফ্রান্সের সশস্ত্র বাহিনী বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের দেওয়া হিসাব অনুযায়ী চার্লস ডি গলের ৬৬৮ ক্রু সদস্যের দেহে কোভিড-১৯ এর উপস্থিতি শনাক্ত হয়েছে।

ফ্রান্সের ফ্লাগশিপ এয়ারক্রাফট ক্যারিয়ার চার্লস ডি গলেতে মোট ১ হাজার ৭৬৭ জন নাবিক রয়েছেন। আক্রান্তদের সবার দেহে রণতরিতে থাকা অবস্থায় করোনার সংক্রমণ ধরা পড়ে। এছাড়া রণতরিটিকে এসকর্ট দেওয়া অন্যান্য নৌযানের ক্রুদেরও করোনা পরীক্ষা করা হচ্ছে।

আক্রান্ত হিসেবে শনাক্তদের মধ্যে ৩১ জন নাবিককে দেশটির টুলন নামক এলাকায় সেন্ট. আন্নে সামরিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সেখানে তাদের চিকিৎসা চলছে। তাদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে তার চিকিৎসা চলছে।

সমুদ্রে টহলরত অবস্থায় প্রাথমিকভাবে ৫০ জন নাবিকের দেহে প্রাণঘাতী করোনায় আক্রান্ত হিসেবে শনাক্ত হওয়ার পর গত রোববার চার্লস ডি গলে এবং তার কাছাকাছি থাকা শেভালিয়ার পল নামের আরেক আরেক রণতরি টুলন উপকূলে নোঙ্গর করানো হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •