নুরুল কবির ,বান্দরবান প্রতিনিধি :

পাশ্ববর্তী উপজেলা চট্টগ্রামের সাতকানিয়া থেকে পালিয়ে বান্দরবান আসায় দুটি বাড়ীকে লক-ডাউন করে দিয়েছে প্রশাসন। বুধবার রাতে বান্দরবান পৌর শহরের বালাঘাটা ২ নং ওয়ার্ড এলাকায় আলম সওদাগরের ছেলে শহিদ ও এর আগে সকালে শৈলশোভা হাউজিং সোসাইটির কামাল মেম্বারের ভাড়াটিয়া জাকির এ দুটি বাসা লকডাউন করে লাল পতাকা ও নোটিশ টানিয়ে দেয় প্রশাসন।

জানা গেছে, বালাঘাটার বাসিন্দা মো: শহিদ অনেক দিন ধরে সাতকানিয়ায় শ্বশুর বাড়ীতে অবস্থান করছিল বুধবার সকালে সাতকানিয়া উপজেলাকে লকডাউন ঘোষনা করলে সে নদী পথে ক্যমলং হয়ে বান্দরবানে প্রবেশ করে।

অপরদিকে শৈলশোভার বাসিন্দা জাকির সাতকানিয়ায় লকডাউনের খবর পেয়ে তার স্ত্রীকে বুধবার সকালে একই পথে বান্দরবানে নিয়ে আসে। পরে এলাকাবাসী বিষয়টি প্রশাসনকে জানালে প্রশাসন বাড়ী দুটি লকডাউন করে দেয় এবং তাদেরকে ২১ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকতে বলা হয় ২১ দিন পর্যন্ত তারা বাড়ীর বাইরে প্রবেশ করতে পারবে না এবং ওই বাড়ীতে কেউ ঢুকতে পারবে না।

জেলার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শামীম হোসেন বলেন সাতকানিয়া থেকে আসায় বালাঘাটায় দুইটি বাড়ী আমরা লকডাউন করেছি এবং তারা ২১ দিন কোয়ারেন্টিনে থাকবে।

উল্লেখ্য পাশ্ববর্তী উপজেলা সাতকানিয়ায় করোনা আক্রান্ত হয়ে একজনের মৃত্যু ও নতুন করে বেশ কয়েকজন করোনা আক্রান্ত হওয়ায় বুধবার সকালে সাতকানিয়া উপজেলাকে পুরোপুরি লকডাউন ঘোষনা করে স্থানীয় প্রশাসন। তাই সেখানে আত্মীয় স্বজনের বাড়ীতে অবস্থানরত বান্দরবানের বাসিন্দারা ভয়ে বিভিন্ন পথে পালিয় বান্দরবান চলে আসছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •