মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

সিলেট এম.এ.জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ এর মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মঈনুদ্দিন এর মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ ও শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করেছেন কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ ডা. অনুপম বড়ুয়া।

কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের শিক্ষক, শিক্ষার্থী, স্টাফদের পক্ষে শোক প্রকাশ করতে গিয়ে সিবিএন-কে অধ্যক্ষ ডা. অনুপম বড়ুয়া বলেন, ভয়ংকর ডাইনী করোনা যুদ্ধে মৃত্যুবরন করা প্রথম একজন চিকিৎসক হচ্ছেন ডা. মঈনুদ্দিন। ডা. মঈনুদ্দিন ঢাকা মেডিকেল কলেজ এর K-48 ব্যাচের একজন মেধাবী ছাত্র ছিলেন। তিনি মেডিসিনে এফসিপিএস ও কার্ডিওলজিতে এমডি করা একজন সম্ভবনাময়ী তরুণ চিকিৎসক ছিলেন। ডা. মঈনউদ্দিনের শরীরে গত ৬ এপ্রিল করোনা ভাইরাস জীবাণু ধরা পড়ার আগ পর্যন্ত তার নিজের নিরাপত্তার কথা মাথায় নারেখে তিনি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের বিরামহীন চিকিৎসা সেবা দিয়েছেন নির্ভয়ে। তার এ মৃত্যু দেশের পুরো চিকিৎসক সমাজের মাথায় আকাশ ভেঙে পড়ার মতো।

অধ্যক্ষ ডা. অনুপম বড়ুয়া তাঁর নিজস্ব ফেইসবুক স্ট্যাটাসে বলেন, ডা. মঈনুদ্দিন-কে বীরের মর্যাদা দিলে সারাদেশে চলমান ভয়াবহ করোনা যুদ্ধে ফ্রন্ট লাইনের অকুতোভয় দুঃসাহসী চিকিৎসক সমাজ প্রেরণা ও প্রত্যয়ে সমৃদ্ধ হবে এবং রাষ্ট্রের প্রতি কৃতজ্ঞ থাকবে।

প্রসঙ্গত, বুধবার ১৫ এপ্রিল সকাল ৭ টা ৫০ মিনিটের দিকে ঢাকা কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে লাইফ সাপোর্ট থাকাবস্থায় চিকিৎসকদের সকল প্রচেষ্টা ব্যর্থ করে দিয়ে সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যাপক ডা. মঈনুদ্দিন না ফেরার দেশে চলে যান। ডা. মঈনুদ্দিন সিলেট জেলার বাসিন্দা ছিলেন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •