জে. জাহেদ , চট্টগ্রাম :

নগরের বায়েজিদ এলাকায় নজরুল ইসলাম নামে একজনকে হত্যার দায়ে গ্রেফতার এমরান হোসেন আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন।

শুক্রবার (১০ এপ্রিল) বিকেলে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আবু সালেম মোহাম্মদ নোমানের আদালতে এমরান হোসেন জবানবন্দি দেন।

চট্টগ্রাম মেটোপলিটন পুলিশের সিনিয়র সহকারী কমিশনার (বায়েজিদ জোন) পরিত্রান তালুকদার বলেন, বৃহস্পতিবার দুপুরে ছুরিকাঘাতে নজরুল ইসলাম নিহত হন। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের পর হত্যার সঙ্গে জড়িত এমরান হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়।

তিনি বলেন, শুক্রবার বিকেলে তাকে মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট আবু সালেম মোহাম্মদ নোমানের আদালতে হাজির করা হলে হত্যার দায় স্বীকার করে তিনি জবানবন্দি দেন।

পরিত্রান তালুকদার বলেন, জবানবন্দিতে এমরান হোসেন জানিয়েছেন- পাওনা টাকা নিয়ে ঝগড়া হয় তাদের মধ্যে। ঝগড়ার এক পর্যায়ে রাগের মাথায় এমরান ছুরিকাঘাত করেন নজরুলকে। আদালতের কাছে হত্যার দায় স্বীকার করে ক্ষমা চেয়েছেন এমরান হোসেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার (৯ এপ্রিল) দুপুরে নজরুল ইসলাম ও এমরান হোসেনের মধ্যে ইয়াবার টাকা লেনদেন নিয়ে কথা কাটাকাটি হয়। ঝগড়ার এক পর্যায়ে এমরান হোসেন নজরুল ইসলামকে ছুরিকাঘাত করেন। দুইজনই ইয়াবায় আসক্ত।

হত্যার ঘটনায় শুক্রবার (১০ এপ্রিল) ভোরে বায়েজিদ এলাকা থেকে এমরান হোসেনকে গ্রেফতার করা হয়। গ্রেফতার এমরান হোসেন নগরের কোতোয়ালী থানাধীন এনায়েতবাজার এলাকার দেলোয়ার হোসেনের ছেলে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

হত্যাকাণ্ডের শিকার নজরুল ইসলাম হাটহাজারী উপজেলার সরকারহাট এলাকার সালেহ আহমদের ছেলে। নিহত নজরুল ইসলাম ও অভিযুক্ত এমরান হোসেন দুইজনই বায়েজিদের বালুচড়া এলাকায় বসবাস করতেন বলে জানায় পুলিশ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •