সংবাদদাতা:

রামুর উপজেলার দক্ষিণ মিঠাছড়ি ইউনিয়নের কাইম্যার ঘোনায় নাজিম (৩৫) নামে এক পঙ্গু ব্যক্তির বসতভিটা দখলে বারবার অপচেষ্টা করা হচ্ছে। শেষ পর্যন্ত দখলে ব্যর্থ হয়ে এবার ওই পঙ্গু ব্যক্তি ও তার স্ত্রীকে ইয়াবা ব্যবসায়ী বানিয়ে ফেসবুকে অপপ্রচার চালানোর অভিযোগ পাওয়া গেছে। একই এলাকার মোক্ততার আহমদের পুত্র জাবেদ ইকবাল নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে এই অভিযোগ করেছেন পঙ্গু নাজিম উদ্দীন।

তিনি অভিযোগ করে জানান, তার পৈত্রিকভাবে প্রাপ্ত ভিটাটি দীর্ঘদিন ধরে দখলে চেষ্টা চালাচ্ছে জাবেদ ইকবাল ও তার পরিবারের লোকজন। সর্বশেষ গত ৮ এপ্রিলও ভিটাটি দখলের চেষ্টা চালায় জাবেদ ইকবাল ও তার লোকজন। এসময় পঙ্গু নাজিম উদ্দীন ও তার স্ত্রীকে মারধরও করা হয়। শেষ পর্যন্ত ভিটাটি দখলে নিতে পারেনি জাবেদ ইকবাল গং। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে ঘটনাস্থলেই নাজিম উদ্দীনকে ইয়াবা ব্যবসায়ী বানিয়ে শায়েস্তা করার হুমকি দিয়ে চলে যায় জাবেদ ইকবাল ও তার লোকজন। এর পরপরই নাজিম উদ্দীন ও তার স্ত্রীকে ইয়াবা ব্যবসায়ী সাজিয়ে ফেসবুকে অপপ্রচার শুরু করা হয়।

পঙ্গু নাজিম উদ্দীন জানান, পৈত্রিকভাবে প্রাপ্ত ভিটায় তিনি পরিবার নিয়ে বসবাস করে আসছেন। গাড়ি চালাতে গিয়ে দুর্ঘটনায় শিকার হয়ে ১৫ বছর ধরে পঙ্গু জীবন কাটাচ্ছেন তিনি। তাই বাধ্য হয়ে তার স্ত্রী ফাতেমা হোপ হসপিটালে সামান্য মাঠকর্মীর চাকরি নেন। তিনিও দীর্ঘ ১২ বছর একই প্রতিষ্ঠানে পাহারাদারের চাকরি করেছেন। সম্প্রতি তাকে গাড়ি চালকের পদোন্নতি দেয়া হয়। দুইজনের চাকরির টাকা দিয়ে তিন সন্তান নিয়ে কোনো রকম জীবন যাপন করছেন তারা। নাজিম উদ্দীনের পিতা ও অন্য ভাইয়েরা রাস্তার অপর পাশে বাস করেন।

নাজিম উদ্দীনের অভিযোগ, জাবেদ ইকবাল জোর পূর্বক তার (নাজিম উদ্দীন) পৈত্রিক বসত ভিটাটি দখল করতে চাচ্ছে। খাস খতিয়ানের জায়গা হওয়ায় এবং অসহায়ত্বকে পুঁজি করে জোর খাটিয়ে ওই ভিটা দখল করতে অপচেষ্টা চালাচ্ছে জাবেদ ইকবাল। একইভাবে জাবেদ ইকবাল ইকবালের বর্তমান ভিটাটিও তার পিতা মোক্তার আহমদ নাজিম উদ্দীনের পিতা মোঃ কালুর কাছে থেকে জোর করে কেড়ে নিয়েছিলো।

একইভাবে নাজিম উদ্দীনের কাছ থেকেও অবশিষ্ট জায়গাটি দখলের চেষ্টা করছে। এতে ব্যর্থ হয়ে এবার নাজিম উদ্দীন ও তার স্ত্রীকে ইয়াবা ব্যবসার অপবাদ দিয়ে অপপ্রচার শুরু করা হয়েছে। ইয়াবা ব্যবসায়ীর অপবাদ দিয়ে প্রশাসনিকভাবে ঘায়েল, মান ক্ষুন্ন এবং স্বামী-স্ত্রীর চাকরি খেয়ে ফেলার চেষ্টা করছে জাবেদ ইকবাল।

এ ব্যাপারে পুলিশসহ আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সহযোগিতা চেয়েছে ভুক্তভোগী পঙ্গু নাজিম উদ্দীন ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •