মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার সদর হাসপাতাল থেকে পালিয়ে যায়নি বলে জানিয়েছেন করোনা উপসর্গ নিয়ে ভর্তি হওয়া ইমতিয়াজ তুষার । হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ থেকে অনুমতি না নিয়ে জুমা পড়তে গিয়েছিলো। এমনটি দাবী তার বলে সিবিএন-কে জানিয়েছেন বিশ্বস্ত সুত্র।

কক্সবাজার শহরের টেকপাড়াস্থ হিন্দু পাড়ার শাহগদি বিল্ডিং এর ভাড়াটিয়া মোহাম্মদ সোলাইমানের পুত্র ইমতিয়াজ তুষার (২২) করোনা উপসর্গ নিয়ে ৯ এপ্রিল রাতে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি হন। শুক্রবার ১০ এপ্রিল সদর হাসপাতালের চিকিৎসকেরা ইমতিয়াজ তুষারের দেহের স্যাম্পল সংগ্রহ করে টেস্টে পাঠানোর জন্য প্রস্তুতি নেন। এক পর্যায়ে
ইমতিয়াজ তুষারের বেডে গিয়ে দেখা যায় সেখানে ইমতিয়াজ তুষার নেই। পরে বিষয়টি হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ পুলিশকে জানায়।

সদর মডেল থানার ওসি সৈয়দ আবু মোঃ শাহজাহান কবির সিবিএন-কে জানান, ইমতিয়াজ তুষারকে খুঁজতে শুক্রবার বেলা আড়াইটার দিকে তার টেকপাড়ার বাসায় পুলিশ গিয়ে তার মোবাইল ফোনে কল করলে সে তখন হাসপাতালে যাচ্ছে বলে পুলিশকে জানায়। পরে হাসপাতালে পুলিশ এসে দেখে ইমতিয়াজ তুষার সদর হাসপাতালে চলে এসেছে। সে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ ও পুলিশকে জুমার নামাজ আদায় করতে গিয়েছিল বলে জানিয়েছে।

ইমতিয়াজ তুষারের দেহের স্যাম্পল সংগ্রহ করে টেস্টের জন্য কক্সবাজার মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়েছে বলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেেন। এ বিষয়ে কাউকে বিভ্রান্ত ও আতংকিত না হওয়ার জন্য কক্সবাজার সদর মডেল থানার ওসি সৈয়দ আবু মোঃ শাহজাহান কবির সকলের প্রতি অনুরোধ জানিয়েছেন।

প্রসঙ্গত, ইমতিয়াজ তুষার হাসপাতাল থেকে কথিত পালিয়ে যাওয়ার বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে মুহুর্তেই ভাইরাল হয়ে যায়। ফলে কক্সবাজারে অনেকেই আতংকিত হয়ে পড়ে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •