রফিক মাহমুদ, উখিয়া :

উখিয়ার বালুখালী রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অগ্নিকান্ডের ঘটনায় স্থানীয় পশ্চিম পাড়া এলাকার রিকসা চালক জামাল হোসেন (৪৫) এর বাড়িসহ পার্শ্ববর্তী রোহিঙ্গা ক্যাম্পের১৫ টি দোকান পুড়ে ছাই হয়ে গেছে।
বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের মাধ্যমে আগুনের সুত্রপাত হয়েছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন।

এ ঘটনায় কেউ হতাহত হয়নি। তাৎক্ষণিক ক্ষয়ক্ষতির পরিমান ১০/১২ লাখ টাকা হতে পারে বলে প্রাথমিক ধারনা করা হচ্ছে।

অগ্নিকান্ডের খবর পেয়ে উখিয়া থেকে ফায়ার সার্ভিসের একটি ইউনিট দ্রুত ঘটনাস্থলে এসে স্থানীয় ও রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর সহযোগীতায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে স্বক্ষম হয়।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার ৯ এপ্রিল রাত আনুমানিক সাড়ে ৮ টার দিকে বালুখালী ৯ নাম্বার রোহিঙ্গা ক্যাম্পের বি- ব্লকের ২৬ নং শেটে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের মাধ্যমে আগুন লাগে। আগুনে স্থানীয় জামাল হোসেনের বাড়িসহ ১৫টি দোকান পুড়ে গেছে।

উখিয়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারন সম্পাদক ইব্রাহিম আজাদ জানিয়েছেন, আগুন দেখে আমরা ঘটনাস্থলে ছুটে যায়, সে সাথে স্থানীয় গ্রামবাসী ও রোহিঙ্গাদের সহযোগীতায় আগুন নিয়ন্ত্রণ আনতে পারি। পরে ফায়ার সার্ভিস আসলে সকলে এক সাথে আগুন নিয়ন্ত্রণের জন্য কাজ করি। ফলে আগুন নিয়ন্ত্রণ করতে স্বক্ষম হয়।

উখিয়ার ফায়ার সার্ভিসের ষ্টেশন মাষ্টার এমদাদুল ইসলাম অগ্নিকান্ডের ঘটনা স্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, এখনো পযর্ন্ত কি কারণে আগুনের সূত্রপাত হয়েছে তা বলা যাচ্ছে না। তবে স্থানীয়রা বলেছেন, বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিটের মাধ্যমে আগুন লাগতে পারে। আমরা তা খতিয়ে দেখছি। ঘটনাস্থলে আইনশৃঙ্কলা বাহিনীসহ ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা রয়েছে।

উখিয়া থানার ওসি (তদন্ত) নুরুল ইসলাম জানিয়েছেন, রোহিঙ্গা ক্যাম্পে অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। খবর পেয়ে আমরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। কি কারণে আগুন লেগেছে তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •