সোয়েব সাঈদ :
রামু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে জেনারেটর ক্রয়ের জন্য চৈত্র সংক্রান্তিতে প্রাপ্ত নিজের একটি বোনাসের ৩৫ হাজার টাকা প্রদান করলেন রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রণয় চাকমা। এছাড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. নোবেল কুমার বড়ুয়া দিয়েছেন আরো ২০ হাজার টাকা।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ডা. নোবেল কুমার বড়ুয়া’র হাতে এ অর্থ তুলে দেন ইউএনও প্রণয় চাকমা।

রামু উপজেলা স্বাস্থ্য ও প.প কর্মকর্তা ডা. নোবেল কুমার বড়ুয়া জানিয়েছেন, হাসপাতালের করোনা রোগীদের সেবার জন্য প্রস্তুতকৃত আইসোলেশন ওয়ার্ডে রোগী এবং ডাক্তারদের চিকিৎসা সেবা দিতে গিয়ে সার্বক্ষণিক বিদ্যুৎ সরবরাহ বিঘ্নিত হওয়ার আশংকা রয়েছে।

বিষয়টি অবহিত হওয়ার পর রামু উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রণয় চাকমা নিজের চৈত্র সংক্রান্তি বোনাসের একটি অংশের ৩৫ হাজার টাকা জেনােরটর ক্রয়ের জন্য দিয়েছেন। তিনি আরো জানান, ইউএনও মহোদয়ের এমন মহৎ উদ্যোগে সাড়া দিয়ে জেনারেটর ক্রয়ের জন্য তিনি নিজেও শুভ বৌদ্ধ পূর্ণিমার বোনাসের ২০ হাজার টাকা প্রদান করেছেন।

ইউএনও’র ৩৫ হাজার এবং নিজের ২০ হাজার সহ মোট ৫৫ হাজার টাকায় ইতিমধ্যে একটি জেনারেটর ক্রয়ের প্রক্রিয়া চলছে।

স্বাস্থ্য কর্মকর্তা নোবেল কুমার বড়ুয়া আরো জানান, ইউএনও প্রণয় চাকমা চলমান করোনা পরিস্থিতিতে অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। তিনি সার্বক্ষণিক হাসপাতালের চিকিৎসক-নার্সদের খবরাখবর নিচ্ছেন এবং এভাবে প্রয়োজনীয় সকল সহযোগিতা দিয়ে যাচ্ছেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার প্রণয় চাকমা জানিয়েছেন, দেশ এখন চরম সংকটময় সময় পার করছে। করোনা পরিস্থিতিতে অনেক মানুষ অর্থ ও খাদ্য সংকটে দূর্ভোগ পোহাচ্ছে। এ পরিস্থিতি মোকাবেলায় সরকারের পাশাপাশি স্বচ্ছল ব্যক্তি, প্রতিষ্ঠান, জনপ্রতিনিধি, বেসরকারি ও সামাজিক সংগঠনকে দেশ ও জনকল্যাণে সেবার মানসিকতা নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •