খলিল চৌধুরী, সৌদি আরব
চলতি মাসের মধ্যে সৌদি আরবে মরণব্যধি রোগ করোনাভাইরাস আক্রান্তের সংখ্যা দশ হাজার থেকে বেড়ে দুই লাখ পর্যন্ত যেতে পারে বলে জানিয়েছেন দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী ডাঃ তৌফিক আল-রাবিয়া।

সৌদি প্রেস এজেন্সি জানিয়েছে, গত ৭ এপ্রিল সৌদি আরব ও আন্তর্জাতিক চারটি গবেষণার বরাত দিয়ে ডাঃ তৌফিক আল-রাবিয়া বলেছেন, করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা না কমে উল্টো বাড়ছে এবং এটি অব্যাহত থাকবে।

আল-রাবিয়া বলেছেন, গবেষণায় দেখতে পাচ্ছি -কয়েক সপ্তাহের মধ্যে দেশে সর্বনিম্ন ১০ হাজার থেকে সর্বোচ্চ ২ লাখ মানুষ করোনায় আক্রান্ত হবে।

মন্ত্রী আরও বলেন, সংক্রমণের সংখ্যা কমিয়ে আনতে দেশের জনগনকে সরকারের নির্দেশনা এবং সতর্কতামূলক পদক্ষেপে সহযোগিতা করা এই মুহূর্তে অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। এতে কোন সন্দেহ নেই যদি সবাই নিয়ম মেনে চলে তাহলে সংক্রমন অনেক কমে যাবে, কিন্তু যদি জনগন সরকারি নির্দেশনা না মেনে চলে তাহলে আক্রান্তের সংখ্যা ভয়াবহ ভাবে বেড়ে যাবে।

স্বাস্থ্য মন্ত্রীর মতে, দেশের অনেক মানুষই করোনার বিপদ সম্পর্কে গুরুত্ব দিচ্ছে না। আর এটি চলতে থাকলে ভবিষ্যতে সবার জন্য বিপদ অপেক্ষা করছে। আমাদের এখনই উচিত সরকারের প্রতিটি পদক্ষেপ মেনে কাজ করা।

সৌদি স্বাস্থ্য মন্ত্রনালয়ও মঙ্গলবার ঘোষণা করেছে সৌদি আরবে এখন পর্যন্ত মোট ২৭৯৯ জনের দেহে করোনা শনাক্ত হয়েছে। সেই সাথে মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ৪১ জনে।

মহামারি করোনা ভাইরাসের বিস্তার ঠোকাত রিয়াদ, তাবুক, দাম্মাম, ধহরান ও আল-হাফুফ এবং জেদ্দা, তাইফ, কাতিফ ও খোবারের রাজ্যগুলোতে ২৪ ঘন্টার কারফিউ এবং লকডাউন জারি করা আছে। সপ্তাহে আগে, বাদশাহ সালমান সৌদি আরবে সবার জন্য চিকিৎসা উন্মুক্ত করেন। যে কেউ সৌদি আরবে বিনা খরচে চিকিৎসা নিতে পারবেন। এমনকি যাদের ভিসা বা কাজের মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে তাদের জন্যেও চিকিৎসাসেবায় কোন বাধা রাখেনি দেশটির সরকার।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •