মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

তাবলীগ জামায়াতের মেহনত করে ফেরত আসা ১১ জন সাথীকে উখিয়ার ইনানীতে কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারান্টাইনে রাখা হয়েছে। ৬ এপ্রিল সোমবার দিবাগত রাত্রে একটি পিকাপে করে নারায়ণগঞ্জ থেকে টেকনাফে ফেরার পথে কর্তব্যরত আইনশৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা তাদেরকে জিজ্ঞাসাবাদ করে প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারান্টাইনে নিয়ে আসে। বিষয়টি উখিয়ার ইউএনও মোঃ নিকারুজ্জামান সিবিএন-কে নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে এই ১১ জনকে চকরিয়া পুলিশের তল্লাশি চৌকিতে আটকানো হয়েছিল। তাদের সবার বাড়ি টেকনাফের সাবরাং ইউনিয়নের শামলাপুর গ্রামে, যাদের অধিকাংশ ছাত্র। গত মার্চ মাসের মাঝামাঝি সময়ে টেকনাফ থেকে কিছু ছাত্রসহ তাবলিগ জামাতের এই দলটি দ্বীনের মেহনতে বের হয়েছিল।

উখিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মোঃ নিকারুজ্জামান আরো জানান, যেহেতু করোনা সংক্রমণ এলাকা হিসাবে নারায়ণগঞ্জকে গুরুত্বপূর্ণ ক্লাস্টার হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে, তাই করোনা ভাইরাস ঝুঁকির কথা বিবেচনা করে তাদের বাধ্যতামূলক প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে। এ সময় তাদেরকে পর্যবেক্ষণে রাখা হবে। কারো শারীরিক সমস্যা দেখা দিলে, সে অনুযায়ী চিকিৎসার ব্যবস্থা নেয়া হবে। আর সুস্থভাবে কোয়ারেন্টাইন শেষ হলে তারা বাড়ি ফিরে যাবে। তাদেরকে পরিবার থেকে খাওয়া দাওয়া সরবরাহ করা হচ্ছে বলে তিনি সিবিএন-কে জানান

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •