সিবিএন ডেস্ক:
ঢাকায় করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়েই চলেছে। এরপর রয়েছে পাশের জেলা নারায়ণগঞ্জ। গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকায় নতুন শনাক্ত করোনা রোগী ২০ জন এবং নারায়ণগঞ্জে ১৫ জন। সারা দেশে নতুন করে ৪১ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে পুরুষ ২৮ জন, নারী ১৩ জন।

মঙ্গলবার (৭ এপ্রিল) দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের করোনাভাইরাস সংক্রান্ত নিয়মিত হেলথ বুলেটিনে এ তথ্য জানানো হয়।

হেলথ বুলেটিন উপস্থাপনকালে স্বাস্থ্য অধিদফতরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ এবং রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা উপস্থিত ছিলেন।

তাদের দেয়া তথ্য বিশ্লেষণ করে জানা গেছে, এর আগে ঢাকাতে মোট ৬৪ জন করোনা রোগী ছিল। ঢাকার পরেই রয়েছে নারায়ণগঞ্জ জেলা। সেখানে ছিল ২৩ জন। সবমিলিয়ে ঢাকায় মোট করোনা রোগীর সংখ্যা দাঁড়ালো ৮৪ জনে।

গত ২৪ ঘণ্টায় যে পাঁচজন মারা গেছেন তাদের মধ্যে দুজন ঢাকার বাকি তিনজন ঢাকার বাইরের। আক্রান্ত ও মৃত্যুর দিক দিয়েও ঢাকা এগিয়ে। আক্রান্তদের মধ্যে ঢাকার বাইরে কুমিল্লার একজন, কেরানীগঞ্জ একজন এবং চট্টগ্রামে একজন রয়েছেন।

বর্তমানে দেশে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ১৬৪ জনে দাঁড়িয়েছে। আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে আরও ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। ফলে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১৭ জনে।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব এড়াতে ঢাকা থেকে যাতে কোনো লোক বাইরে যেতে না পারে এবং ঢাকার বাইরে থেকে কোনো মানুষ যাতে ঢাকায় আসতে না পারে সে জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে পুলিশের সব ইউনিটকে নির্দেশনা দিয়েছেন বাংলাদেশ পুলিশের ইন্সপেক্টর জেনারেল (আইজিপি) ড. মোহাম্মদ জাবেদ পাটোয়ারী।

গত রোববার তিনি এই নির্দেশনা দেন। ফলে আইজিপির এই নির্দেশে লকডাউনের কথা উল্লেখ না করা হলেও কার্যত ‘লকডাউন’ রয়েছে ঢাকা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •