ইমাম খাইর, সিবিএনঃ
কক্সবাজারের ৮ উপজেলার ফ্লু কর্ণারগুলো থেকে দৈনিক ১০ টি করে করোনা ভাইরাসের স্যাম্পল পাঠানোর সুযোগ থাকলেও সংগ্রহের পরিমাণ কাঙ্ক্ষিত নয়।
সোমবার (৬ এপ্রিল) পর্যন্ত নেগেটিভ হওয়া ২৪টি করোনা স্যাম্পলের মধ্যে উপজেলা ফ্লু কর্ণারগুলোর তেমন নেই বললে চলে।
তবে, মঙ্গলবার পরীক্ষাধীন নতুন ২৫ স্যাম্পলে বেশ কিছু উপজেলা থেকে প্রেরণ করা হয়েছে বলে জানা গেছে।
কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের সহকারি অধ্যাপক (ট্রপিক্যাল মেডিসিন ও সংক্রামক রোগ বিশেষজ্ঞ) ডাঃ মোহাম্মদ শাহজাহান কক্সবাজার নিউজ ডটকম (সিবিএন)কে জানান, সন্দেহজনক কভিড-১৯ (করোনা ভাইরাস) রোগীরা ডাক্তারদের পরামর্শ অনুযায়ী সংশ্লিষ্ট উপজেলার ফ্লু কর্নারের সাথে মোবাইলে যোগাযোগ করবে।
সংশ্লিষ্টরা উপজেলার এমটি ল্যাবের মাধ্যমে স্যাম্পল সংগ্রহ করে কক্সবাজার মেডিক্যাল কলেজের আইইডিসিআর ল্যাবে পরীক্ষার জন্য পাঠাবে। ১ দিন পরে পরীক্ষার রিপোর্ট জানা যাবে।
তিনি জানান, সন্দেহভাজন করোনা রোগী নিজের বাসা থেকে বের হবে না। সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলতে হবে। মোবাইল ফোনে চিকিৎসাসেবা নেবে।
কক্সবাজার মেডিকেল কলেজ সূত্র জানিয়েছে, দিনে ৯৬ টি করোনা পরীক্ষা করা সম্ভব।
সম্পূর্ণ ফ্রি হলেও নির্ধারিত চিকিৎসকের রেফারেন্স ছাড়া যে কেউ চাইলে পরীক্ষা করতে পারবে না।
বিশ্বের উন্নত দেশগুলোতে করোনা ভাইরাসের পরীক্ষা সহজলভ্য হলেও বাংলাদেশে এখনো নিয়ন্ত্রিত।
কক্সবাজার মেডিকেল কলেজে রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট (আইইডিসিআর) ল্যাবে পরীক্ষা করা হয়।
বাংলাদেশে মহামারী ও সংক্রামক ব্যাধি গবেষণা ও রোগ নিয়ন্ত্রণ বিষয় নিয়ে কাজ করে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন আইইডিসিআর।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •