সিবিএন ডেস্ক:

নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে রাজধানী ঢাকার ধারাবাহিকতায় চট্টগ্রাম মহানগর এলাকায় সর্বসাধারণের জন্য ঢোকা ও বের হওয়া বন্ধ ঘোষণা করেছে মহানগর পুলিশ (সিএমপি)। আজ রাত ১০টা থেকে এই নির্দেশনা কার্যকর হবে। পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত তা বলবৎ থাকবে। তবে জরুরি সেবার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তি ও যানবাহন এর আওতার বাইরে থাকবে।

সিএমপির অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার (জনসংযোগ) মোহাম্মদ আবু বকর সিদ্দিক এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। সিএমপি ফেসবুকে অনলাইন বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানিয়ে দেয়।বাংলা ট্রিবিউনকে তিনি জানান, করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে  জরুরি সেবা, চিকিৎসা, খাদ্যপণ্য ও রফতানি পণ্য পরিবহন কাজে নিয়োজিত ব্যক্তি ও যানবাহন ছাড়া সব ধরনের ব্যক্তি ও যানবাহন চলাচলের ওপর নিয়ন্ত্রণের নির্দেশ দিয়েছেন চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ কমিশনার মাহবুবুর রহমান। এসব কাজে জড়িত ব্যক্তি ও তাদের যানবাহন ছাড়া আর কোনও ব্যক্তি বা পরিবহন চট্টগ্রাম মহানগর এলাকা থেকে আজ রাত ১০টার পর বের হতে পারবে না এবং অন্য এলাকা থেকে চট্টগ্রাম শহরে প্রবেশও করতে পারবে না। আজ রাত ১০টা থেকেই এটি কার্যকর হবে এবং পরবর্তী নির্দেশ না দেওয়া পর্যন্ত তা বলবৎ থাকবে।

তিনি আরও জানান, বিষয়টি নিশ্চিত করার জন্য ইতোমধ্যে চট্টগ্রাম মহানগরীর সব প্রবেশ পথে এবং মহানগরীর অভ্যন্তরে বিভিন্ন পয়েন্টে সিএমপি কর্তৃক চেকপোস্ট  স্থাপন করা হয়েছে। এ নির্দেশ অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

উল্লেখ্য, করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে রবিবার (৫ এপ্রিল) ঢাকা মহানগরীতে প্রবেশ ও বের হওয়া বন্ধের ঘোষণা দেয় ঢাকা মহানগর পুলিশ (ডিএমপি)। এ সিদ্ধান্ত ইতোমধ্যে কার্যকর করা হয়েছে। এছাড়াও সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে দুপুর দুইটার মধ্যে সাধারণ মুদি দোকান এবং সন্ধ্যা সাতটার মধ্যে সুপার শপ ও  সব ধরনের কাঁচাবাজার বন্ধের নির্দেশও দিয়েছে ডিএমপি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •