নিজস্ব প্রতিবেদকঃ
কক্সবাজার সদরের খুরুশকুলের কুলিয়াপাড়ায় বৈদ্যুতিক তারে জড়িয়ে বাচ্চাসহ দুগ্ধ গাভীর মৃত্যু হয়েছে।
রবিবার (৫ এপ্রিল) সকাল ঘটনা ঘটে।
এই ঘটনার জন্য পল্লীবিদ্যুৎকে দায়ী করেছে স্থানীয় বাসিন্দারা।
গরুর মালিক ওই এলাকার কোরবান আলীর ছেলে শামসুল আলম।
তিনি অভিযোগ করেন, ৪ এপ্রিল আকষ্মিক সৃষ্ট দমকা হাওয়ায় বিদ্যুতের সার্ভিস তার ছিঁড়ে সড়কের ওপর পড়ে থাকে। একদিন পার হলেও সরানো হয় নি। ওই তারের কারণে পথচারীরাও আতংকের সাথে চলাচল করেছে।
বিষয়টি তাৎক্ষণিক এলাকার পল্লী বিদ্যুতের ইনচার্জ ওয়াহেদ তালুকদারকে জানানো হয়। সদর এরিয়ার ইনচার্জ বকুলকেও অবগত করেন শামসুল আলম। তবুও তারা অবহেলা করেছে। যে কারণে মাটিতে পড়ে থাকা বৈদ্যুতিক তার স্পৃষ্টে দুইটি গরুর মৃত্যু হলো।
একই অভিযোগ গিয়াস উদ্দিন নামের স্থানীয় এক বাসিন্দার।
তিনিও পল্লী বিদ্যুতের কর্মকর্তাদের ফোন করে কোন সাড়া পান নি বলে অভিযোগ করেছেন।
ঝুঁকিপূর্ণ একটি মুহূর্তে অবহেলার জন্য সংশ্লিষ্টদের বিরুদ্ধে শাস্তিমুলক ব্যবস্থা দাবি করেছে এলাকাবাসী।
এ বিষয়ে কক্সবাজার পল্লী বিদ্যুৎ সমিতির জেনারেল ম্যানেজার (জিএম) আক্তারুজ্জামান লস্করের বক্তব্য জানতে ফোন করে পাওয়া যায় নি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •