বলরাম দাশ অনুপম :

কক্সবাজারের ইনানী সৈকতে আরো একটি মৃত ডলফিন ভেসে এসেছে। রোববার সকালে ইনানীর হোটেল রয়েল টিউলিপের সামনে সৈকতে মৃত ডলফিনটিকে দেখতে পান একজন এনজিও কর্মী।

বেশ কয়েকদিন আগের মৃত ডলফিনটির লেজে রশি বাঁধা ছিল। এ থেকে ধারনা করা হচ্ছে সেটি কোন জেলের জালে আটকা পড়েছিল। এরপর জেলেরা এটিকে পিটিয়ে মেরে থাকতে পারে বলে ধারনা করছেন স্থানীয়রা। এদিকে খবর পেয়ে স্থানীয় ইউপি মেম্বার নাজিম উদ্দিন, বিট কর্মকর্তা মেকলেস চাকমা ঘটনাস্থলে গিয়ে ডলফিনটি খুঁজে পাননি। নাজিম উদ্দিন জানান, ডলফিনটি হয়তো জোয়ারের পানিতে ভেসে গিয়ে থাকতে পারে। এরআগে শনিবার টেকনাফের শামলাপুর সৈকতে আরো একটি মৃত ডলফিন ভেসে আসে। ইনানী রেঞ্জ কর্মকর্তা মো. ইব্রাহিম হোসেন জানান, খবর পেয়ে আমরা ডলফিনটি খোঁজাখুঁজি করি কিন্তু সৈকতের কোথাও সেটি দেখা যায়নি। জোয়ারে এটি ভেসে গিয়ে থাকতে পারে। তবে শুনেছেন ডলফিনটি বেশ কয়েকদিন আগের।

টেকনাফের হোয়াইক্যং রেঞ্জ কর্মকর্তা মনজুরুল আলম জানান, পশু সম্পদ কর্মকর্তার সহায়তায় শনিবার রাতে টেকনাফের শামলাপুর সৈকতে ভেসে আসা ডলফিনটির ময়নাতদন্তের জন্য শরীরের বিভিন্ন অংশের আলামত সংগ্রহ করা হয়েছে। পরে সেটিকে মাটিতে পুঁতে ফেলা হয়। এদিকে কিছুদিন আগে কক্সবাজারের কলাতলী পয়েন্টে সাগরে একদল ডলফিলকে খেলা করতে দেখা গেছে। নির্জন সাগরে ডলফিনের খেলা নিয়ে বেশ মানুষের মাঝে বেশ আলোড়ন সৃষ্টি হলেও একে একে মৃত ডলফিন ভেসে আসায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমসহ সর্বত্র নিন্দার ঝড় উঠেছে। তাদের ধারনা আরো অধিক সংখ্যক ডলফিন হত্যার শিকার হয়ে থাকতে পারে। অভিযোগের তীর জেলেদের দিকে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •