ফাইল ছবি

যমুনা : ফুটপাতেই বিক্রি হচ্ছে ব্যক্তিগত সুরক্ষা পোষাক বা পিপিই। অবিশ্বাস্য হলেও এটাই সত্য। সাধারণ কাপড়ে সেলাই করা এসব সামগ্রী বিক্রিও হচ্ছে ৩০০ থেকে ৪০০ টাকায়।

মিটফোর্ড হাসপাতালের সড়ক অলিগলিসহ কিছু ফার্মেসিতেও তা বিক্রি হচ্ছে পিপিই নামে। কিন্তু যারা কিনছেন বা বিক্রি করছেন তাদের কেউই জানে না আসলে এগুলো ব্যবহারে কোন সুরক্ষা মিলবে কি না?

করোনা প্রাদুর্ভাবে বর্তমানে সবমহলেই পরিচিত শব্দ পিপিই। চিকিৎসকসহ স্বাস্থ্যকর্মীদের জীবাণু থেকে সুরক্ষা দিতে অপরিহার্য এ পোশাক। পিপিই না থাকায় উপসর্গ রোগীদের চিকিৎসা দিতেও পিছিয়ে পড়েছিলেন অনেক চিকিৎসক। পরে জরুরি ভিত্তিতে হাসপাতালগুলোতে প্রয়োজনীয় পিপিই সরবরাহের কথা জানান মন্ত্রী।

এদিকে দেশে-বিদেশে মান-সম্মত পিপিই সরবরাহে কাজ করছে অনেক পোশাক কারখানা। একেকটির দামও বেশ। কিন্তু এক্সক্লুসিভ এ পণ্য এখন বিক্রি হচ্ছে ফুটপাতে। মিটফোর্ড হাসপাতাল এলাকার সড়ক, অলিগলি বা সাধারণ ফার্মেসি- এখান থেকে যে কেউ কিনতে পারেন ৩শ থেকে ৪শ টাকায়।

জানা যায়, ঘরে থাকা সেলাই মেশিন দিয়ে তৈরি হচ্ছে এ সুরক্ষা পোষাক। যারা তৈরি করছেন তারা নিজেও জানে না এতে আদৌ কাজ হবে কি না। সাধারণ মানুষই এসব তথাকথিত পিপিই’র ক্রেতা বলে জানা গিয়েছে। সেইসাথে বিক্রেতারা দাবি করছেন ডাক্তার নার্সরাও কিনছেন এসব পিপিই।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •