ইমাম খাইর, সিবিএন:
শুক্রবার (৩ এপ্রিল) দিবাগত রাত পৌনে ১১টা। এক মহিলা ফোন করেন কক্সবাজার জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেনকে। জানালেন তার অভাবের কথা।

হতদরিদ্র মহিলার ফোন পাওয়ার ৪০ মিনিটের মাথায় ঘরে গিয়েই খাদ্যসামগ্রী পৌঁছিয়ে দিয়ে আসলেন কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মু. মাহমুদ উল্লাহ মারুফ।

কক্সবাজার শহরের বাদশাঘোনার মসজিদে ওমর ফারুকের পাশে দরিদ্র মহিলাটির বাড়ি। নাম জেসমিন আকতার। স্বামীহীন ঘরে ২টি সন্তান ও শ্বাশুড়িকে নিয়ে তার বসবাস। করোনার কারণে কর্মে বের হতে পারে নি। তাই খাবারও জুটছে না।

এ বিষয়ে জেলা প্রশাসক মো. কামাল হোসেন বলেন, একটি মহিলা খাবারের সংকটের কথা জানিয়ে আমাকে ফোন করেন। যোগাযোগ করার ৪০ মিনিটের মাঝে বাড়িতেই খাদ্য সহায়তা পৌঁছে দেয়া হয়েছে।

ডিসি বলেন, যোগাযোগ করুন। আমরা সর্বক্ষণ আপনাদের সেবায় নিয়োজিত আছি।

কক্সবাজার সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মু. মাহমুদ উল্লাহ মারুফের নিকট জানতে চাইলে বলেন, ডিসি স্যার শুক্রবার (৩ এপ্রিল) দিবাগত রাত পৌনে ১১টার দিকে এসএমএস করে মহিলাটির তথ্য দেন। এরপরই জরুরী ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে বেরিয়ে গেলাম। দুর্গম এলাকায় রাতের অন্ধাকে বাসার ঠিকানা খুঁজে ওই মহিলাটির হাতেহাতে খাদ্য তুলে দিয়ে আসি।

ইউএনও বলেন, দুর্যোগে মানুষের পাশে আছি। কোন অভাবী মানুষ ফোন করলেই আমরা ঘরেই খাবার পৌঁছিয়ে দেব। আপনারা ঘরে থাকুন। নিরাপদ থাকুন।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •