এম.জিয়াবুল হক,চকরিয়া :

মহামারী করোনা ভাইরাসের কারণে সরকারি সিদ্বান্তের আলোকে চকরিয়া পৌরসভার পক্ষ থেকে পৌরবাসির সুরক্ষা নিশ্চিতকল্পে বিভিন্ন নির্দেশনা বাস্তবায়নে সিদ্ধান্ত সমূহ পর্যালোচনা এবং প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণে চকরিয়া পৌরসভা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কমিটির এক জরুরী সভা বৃহস্পতিবার (২ এপ্রিল) চকরিয়া পৌরসভা মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়েছে।

চকরিয়া পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সম্পাদক আলমগীর চৌধুরীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত জরুরী সভায় প্রতিটি ওয়ার্ডের সমস্যা ও দুর্ভোগ বিষয়ে আলোচনা করেন স্থানীয় কাউন্সিলরবৃন্দ। পরবর্তীতে সভার সকলের মতামতের ভিত্তিতে উল্লেখিত বিভিন্ন নির্দেশনা বাস্তবায়নে সিদ্ধান্ত গ্রহীত হয়। সভার সিদ্বান্তের আলোকে চকরিয়া পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডের কর্মহীন ৫০০০ হাজার পরিবারকে খাদ্য সহায়তা হিসেবে চাল দেয়া হবে বলে নিশ্চিত করেছেন মেয়র আলমগীর চৌধুরী।

অনুষ্ঠিত সভায় চকরিয়া পৌরসভার প্যানেল মেয়র বশিরুল আইয়ুব, সচিব মাস-উদ মোর্শেদ, কাউন্সিলর মছুদুল হক মধু, কাউন্সিলর রেজাউল করিম, কাউন্সিলর জাফর আলম কালু, কাউন্সিলর ফোরকানুল ইসলাম তিতু, কাউন্সিলর আলহাজ জিয়াবুল হক, কাউন্সিলর জামাল উদ্দিন, কাউন্সিলর মুজিবুল হক মুজিব, কাউন্সিলর নজরুল ইসলাম, নারী কাউন্সিলর রাশেদা বেগম, নারী কাউন্সিলর রাজিয়া সুলতানা খুকুমনি, নারী কাউন্সিলর আঞ্জুমান আরা বেগম উপস্থিত ছিলেন।

চকরিয়া পৌর পরিষদের অনুষ্ঠিত সভায় গৃহিত সিদ্ধান্ত সমূহ নিম্নরোপ. (১) করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সরকারি সিদ্ধান্ত মোতাবেক লক ডাউন হওয়া ক্ষতিগ্রস্ত টমটম,রিকসা, অন্যান্য পরিবহন শ্রমিক,ভিক্ষুক, হতদরিদ্র, দিনমজুর, কৃষি শ্রমিক,দোকান কর্মচারি ও কর্মহীন মানুষের মাঝে বিতরণের জন্য সরকার হতে ১৩টন চাউল বরাদ্দ পাওয়া যায়।উক্ত বরাদ্দ সভায় অপ্রতুল বিবাচিত হওয়া চকরিয়া পৌরসভার নিজস্ব তহবিল হতে আরো পর্যাপ্ত চাউল ক্রয় করে প্রতি ওয়ার্ডে ৪টন করে সর্বমোট ৩৬টন চাউল প্রতি ওয়ার্ডে ৪০০ পরিবার করে মোট ৩৬০০ পরিবারের মাঝে ১০ কেজি করে বিতরণে সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়। (২) চকরিয়া পৌরসভার প্রধান প্রধান সড়ক ও প্রত্যকটি গুরুত্বপূর্ণ রাস্তায় জীবাণুনাশক স্প্রে ছিটানো চলমান কাজকে আরো জোরদার করা সিদ্ধান্ত হয়। (৩) চকরিয়া পৌরসভার ৮০টি মসজিদে মুসল্লী ও সর্বসাধারণের সুবিধার্থে ব্লিচিং পাউডার বিতরণ করা হয়। (৪) চকরিয়া পৌর এলাকায় আনাচে কানাছে জনসচেতনতা মূলক করোনা ভাইরাসে লিফলেট ও মাইকিং করা হয়। (৫) চকরিয়া পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে গুরুত্বপূর্ণ ৩০টি স্থানে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে হাত ধোঁয়ার জন্য সাবান সহ পানির ড্রাম বসানো হয়। (৬) চকরিয়া পৌরসভার ৬টি গুরুত্বপূর্ণ্য স্থানে চিরিংগা, ঘনশ্যামবাজার, থানার সেন্টার, মগবাজার, পালাকাটা প্রাথমিক বিদ্যালয়, ভাঙ্গারমুখ উক্ত স্থান সমূহ হতে ডিলারে মাধ্যমে প্রতিদিন ৬মেঃটন চাউল ৫কেজি করে ১২০০ পরিবার প্রতি কেজি ১০ টাকা মূল্য মাসব্যাপী ক্রয় করতে পারবেন। (৭) চকরিয়া পৌরসভার সকল ওয়ার্ডে ডেঙ্গু রোগের এডিস মশার প্রতিরোধে ওষুধ ছিটানো সিদ্ধান্ত গৃহিত হয়।

মেয়র আলমগীর চৌধুরী বলেন, পৌরবাসির সুরক্ষা নিশ্চিত ও পৌর এলাকার সর্বসাধারণ প্রতি বিনীত অনুরোধ আপনারা সরকারি সিদ্ধান্ত মোতাবেক লক ডাউন ও সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে চলবেন। আল্লাহ আমাদের সকলকে মহামারি করোনা ভাইরাস থেকে হেফাজত করুন।#

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •