প্রেস বিজ্ঞপ্তি :
করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে জনসচেতনতা বৃদ্ধি‘র সাথে হ্যান্ড স্যানিটেশন ও ডিটারজেন্ট নিয়ে হত দরিদ্রদের পাশে দাঁড়িয়েছে ‘তুর্কিশ দিয়ানেত ফাউন্ডেশন‘।
বৃহস্পতিবার বিকালে স্থানীয় যুব সমাজের সহযোগিতায় সাগর পাড় সহ বাহারছড়ার ৩০০ হত দিরদ্র পরিবারের মাঝে হ্যান্ড স্যানিটেশন ও ডিটারজেন্ট বিরতরণ করে এই সংস্থা। এসময় তারা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সামাজিক দুরত্ব বসায় রাখার পাশাপাশি ঘরে থাকার প্রচারণা চালান।
তুর্কিশ দিয়ানেত ফাউন্ডেশনের বাংলাদেশী সমন্বয়ক নাজির মোহাম্মদ আরিফুল হক জানান, রোহিঙ্গাদের সহযোগিতার পাশাপাশি করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে স্থানীয়দের সহযোগিতা করছে সংস্থাটি। তারই অংশ হিসেবে হত-দরিদ্র লোকজনের ঘরে ঘরে গিয়ে সচেতনতামূলক প্রচারণার সাথে হ্যান্ড স্যানিটেশন ও ডিটারজেন্ট বিতরণ করা হচ্ছে। প্রথম দিনে সহযোগিতা করা হয় ৩০০ পরিবারকে।
উপকারভোগী নারী রাবেয়া খাতুন জানান, করোনা ভাইরাসের প্রভাবে সবদিকে যখন সবকিছু বন্ধ তখনই এই সংস্থার সহযোগিতাটি খুবই উপকারে আসছে। এছাড়া তারা জানতে পারছে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে কিভাবে হাত-মুখ ধুতে হবে আর ঘরের ভিরত অবস্থান করতে হবে।
দিন মজুর লিয়াকত মিয়া জানান, সমুদ্র পাড়ের এই বস্থিতে কেউ এখনো কোন সহযোগিতা নিয়ে আসেনি। এই মুহুর্তে সংস্থাটি হ্যান্ড স্যানিটেশন ও ডিটারজেন্ট দেওয়ার পাশাপাশি সবাইকে সচেতন করছে দূরত্ব বজায় রেখে চলাচল করতে আর ঘর থেকে বের না হবে।
এই কাজ বাস্তবায়নে স্বেচ্চায় সহযোগিতা করা বাহারছাড়ার সচেতন যুবক মহিউদ্দিন জাহাঙ্গীর মার্শাল জানান, সারা পৃথিবীতে এখন মহামারীর আকার ধারন করছে করোনা ভাইরাস। এই ভাইরাস থেকে বাচঁতে ঘরে থাকা নীত বাস্তবায়ন ও অসহায়দের সহযোগিতায় কাজ করে যাচ্ছে বাহারছড়ার যুব সমাজ। তারই অংশ হিসেবে অসহায়দের সহযোগিতায় সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে ‘তুকির্শ দিয়ানেত ফাউন্ডেশনকে‘ স্বেচ্চায় সহযোগিতা করছে।
এই কাজ বাস্তবায়নে যুব সমাজের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, হেলাল উদ্দিন, জয়নাল আবেদিন, আব্দুর রশিদ, নুর উদ্দিন তাহসিন, আসিফ ও আব্দুল্লাহ সহ অন্যানরা।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •