বিদেশ ডেস্ক:

দুনিয়াজুড়ে ছড়িয়ে পড়া করোনাভাইরাসের দুটি পরীক্ষামূলক টিকা উন্নয়নের কাজ শুরু করেছেন অস্ট্রেলিয়ার বিজ্ঞানীরা। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয় এবং মার্কিন কোম্পানি ইনিওভিও ফার্মাসিউটিক্যালের প্রস্তুতকৃত এসব টিকাকে প্রাণীদেহে পরীক্ষায় ছাড়পত্র দিয়েছে বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

অস্ট্রেলিয়ার জাতীয় বিজ্ঞান সংস্থা এখন এই টিকার কর্মক্ষমতা পরীক্ষা করে দেখবে। মানুষের ওপর তা কাজ করবে কিনা তাও দেখা হবে। বিবিসি জানিয়েছে, গত মাসে যুক্তরাষ্ট্রে মানুষের ওপর এই টিকা পরীক্ষা করা হয়েছিল। তবে প্রাণীদেহে পরীক্ষার আগেই সেটা করা হয়।

করোনাভাইরাসের টিকা উদ্ভাবনের কাজ চলছে বিশ্বের বিভিন্ন স্থানে। তবে অস্ট্রেলিয়ার কমনওয়েলথ সায়েন্টিফিক অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রিয়াল রিসার্চ অর্গানাইজেশন (সিসরো) বলছে, তাদের টিকাই প্রথম, যেখানে পূর্ববর্তী ক্লিনিক্যাল পরীক্ষাগুলো যথাযথ প্রক্রিয়ায় সম্পন্ন করা হবে।

গবেষকরা বলছেন, করোনার টিকা উদ্ভাবনে দুনিয়া জুড়ে যে মাত্রায় ও দ্রুত গতিতে সহযোগিতা চলছে তা অভূতপূর্ব। বৃহস্পতিবার সিসরো’র বিজ্ঞানী ড. রব গ্রেনফেল বলেন, ‘এই পর্যায়ে পৌঁছাতে সাধারণত দুই বছর সময় লাগে আর আমরা প্রকৃতপক্ষে এখন তা কয়েক মাসের মধ্যে নামিয়ে এনেছি’।

গত কয়েক দিনে সিসরোর বিজ্ঞানীরা এই টিকার নমুনা লোমযুক্ত স্তন্যপায়ী প্রাণীর ওপর প্রয়োগ করে দেখেছেন যে, মানুষের শরীরে করোনাভাইরাসে যে প্রতিক্রিয়া তৈরি করে এই টিকাতেও তাই ঘটেছে।

প্রাণীর ওপর পরীক্ষার ফলাফল পেতে আগামী জুন মাস পর্যন্ত সময় লাগতে পারে বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা। সফল হলে তা ক্লিনিক্যাল পরীক্ষার জন্য যাবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •