ইমাম খাইর, সিবিএন:
কক্সবাজার শহরের দুর্ধর্ষ রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী নুর জোহার (২৫) হত্যা মামলার প্রধান আসামী একরাম (২৭)কে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
মঙ্গলবার (৩১ মার্চ) চট্টগ্রামের পটিয়া থেকে তাকে গ্রেফতার করে কক্সবাজার সদর থানায় নিয়ে আসা হয় বলে জানা গেছে।
একরাম কক্সবাজার পৌরসভার ৬ নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ রুমালিয়ারছরা সমিতিবাজার এলাকার জালাল আহমদের ছেলে।
গ্রেফতারের সত্যতা নিশ্চিত করেছেন কক্সবাজার সদর মডেল থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) মো. খাইরুজ্জামান।
২০১৯ সালের ১৫ নভেম্বর সকাল সাড়ে ৮টার দিকে পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ সাহিত্যিকা পল্লি সমিতি বাজার সংলগ্ন ব্রিজের নিচ থেকে নুর জোহারের বিকৃত মৃতদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। সে ওই এলাকার মৃত হোসেন আহমদের ছেলে।
এ ঘটনায় নুর জোহারের মা খালেদা আক্তার বাদি হয়ে কক্সবাজার সদর মডেল থানায় মামলা করেন। যার নং-৫২/২০১৯।
এ মামলায় একরাম ছাড়াও এজাহারনামীয় আরো দুইজন আসামী রয়েছে।
তারা হলো- দক্ষিণ রুমালিয়ারছরা এলাকার মো. খলিলের ছেলে মো. জসিম (২০) ও মো. জলিলের ছেলে জাহেদ (২০)। অজ্ঞাতনামা রয়েছে আরো ৬ জন।
কক্সবাজার সদর মডেল থানার এসআই মোহাম্মদ আরিফ জানান, বুধবার (১ এপ্রিল) বিকালে আসামীকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। আসামী সরাসরি ঘটনায় জড়িত থাকার কথা স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছে আদালতে। ঘটনায় জড়িত অনেকের নাম প্রকাশ করেছে। তদন্তের স্বার্থে নাম প্রকাশ করা যাচ্ছে না।
গত বছরের ১৫ নভেম্বর সকালে ব্রিজের নিচে একটি মৃতদেহ গড়ে থাকতে দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে জবাই করা মৃতদেহটি উদ্ধার করে। পরে থানার রেকর্ড অনুযায়ী হত্যা, ধর্ষণ, ছিনতাই ও মাদকসহ একাধিক মামলার আসামি নুর জোহারকে শনাক্ত করা হয়।
আধিপত্য বিস্তার নিয়ে দুই গ্রুপের বিরোধের জের ধরে তাকে জবাই করে হত্যার পর ব্রিজের উপর থেকে নিচে ফেলে দিয়ে চলে গিয়েছিল।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •