পলাশ বড়ুয়া, উখিয়া॥

করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে সরকারি নির্দেশনা মেনে ঘরে থাকা জাতি, ধর্ম নির্বিশেষে হতদরিদ্র মানুষ গুলোকে ত্রাণ সহায়তার পাশাপাাশি সচেতনতা সৃৃষ্টি, জরুরী মুহুর্তে রোগীদের জন্য পরিবহণ সহযোগিতা দিচ্ছে কক্সবাজারের উখিয়ার বৌদ্ধ সমাজ।

৩১ মার্চ দুপুরে উখিয়া উপজেলার রতœাপালং ইউনিয়নের পূর্বরতœা মৈত্রী বিহারে উপাসক সুকুমার বড়–য়া’র উদ্যোগে ৬০ পরিবারকে চাল, ডাল, তৈল, পেয়াজ, সাবান সহ বিভিন্ন নিত্যাপ্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি বিতরণ করা হয়। এ সময় শুধুমাত্র বৌদ্ধ নয় পার্শ্ববর্তী হতদরিদ্র মুসলিম পরিবারকেও ত্রাণ সহায়তা দেয়া হয় বলে জানিয়েছেন উদ্যোক্তা সুকুমার বড়–য়া।

এ সময় দূরত্ব বজায় রেখে ত্রাণ বিতরণকালে মাইক হাতে জনসচেতনতামূলক প্রচারণায় অংশ গ্রহণ করেন রতœাপালংয়ের ইউ.পি খাইরুল আলম চৌধুরী। ত্রাণ বিতরণকালে উপস্থিত ছিলেন পূর্বরতœা মৈত্রী বিহারের অধ্যক্ষ জ্যোতিমিত্র ভিক্ষু, শিক্ষক হেমন্দ্র লাল বড়–য়া, শিক্ষক সুবদন বড়–য়া, শিক্ষক রাজেশ্বর বড়–য়া, শিক্ষক পরিমল বড়–য়া, সাংবাদিক পলাশ বড়–য়া, সাংবাদিক শরীফ আজাদ, এনজিওকর্মী আবদু রহিম, খেলোয়াড় পিকু বড়–য়া। ত্রাণ বিতরণ কাজে সার্বিক সহযোগিতা করেন পূর্বরতœা বৌদ্ধ যুব পরিষদ।

এর আগে মধ্যরতœা রতœাংকুর বৌদ্ধ বিহারের অধ্যক্ষ জ্যোতি প্রজ্ঞা থের ও স্থানীয় যুবকদের সহযোগিতায় ২৫ পরিবারকে ত্রাণ সহায়তা দেয়া হয় বলে জানিয়েছেন বিজন বড়–য়া।

পাশাপাশি করোনা ভাইরাস থেকে রক্ষা পেতে সাধারণ মানুষকে অপ্রয়োজনে বাইরে বের না হয়ে নিজ নিজ বাড়িতে অবস্থান করতে অনুরোধ জানিয়ে কুশলায়ন শিশু শিক্ষা একাডেমী পুরাতন রুমখাঁর পক্ষ থেকে ৮নং ওয়ার্ডের হিন্দু বৌদ্ধ মুসলিমদের মাঝে ২ হাজার মাক্স ও সাবান বিতরণ করা হয় এমনটি জানিয়েছেন উখিয়া সংঘরাজ ভিক্ষু সমিতির সাধারণ সম্পাদক ভদন্ত জ্যোতি প্রিয় থের।

অপরদিকে করোনা দূর্যোগে মুমুর্ষ রোগী বহনের জন্য নিজের ব্যবহৃত গাড়ী দিয়ে মানবিক সহযোগিতা দেয়ার কথা জানিয়েছেন রাংকূট বনাশ্রম বৌদ্ধ বিহারের পরিচালক কে.শ্রী জ্যোতিসেন থের। জরুরী প্রয়োজনে গাড়ীর জন্য যোগাযোগ: ০১৮২৯৬৯৮২৪৮।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •