শাহীন শাহ, টেকনাফ :

টেকনাফে নভেল করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে প্রচার প্রচারণা চালানো সহ মাঠে কাজ করছেন ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচি (সিপিপি)।

৩০ মার্চ সকাল থেকে উপজেলার হোয়াইক্যং ইউনিয়নের বেশ কিছু এলাকায় ও বাজারে এ প্রচারণা চালান তারা। এ ছাড়া বেশ কয়েক দিন ধরে টেকনাফ উপজেলার প্রতিটি ইউনিয়নে প্রচার প্রচারণা চালিয়েছে সিপিপি ভলান্টিয়ারেরা।

এ সময় সিপিপির ইউনিয়নের টিম লিডার ও ওয়ার্ডের টিম লিডার ছাড়াও সেচ্ছাসেবীরা উপস্থিত থেকে এ প্রচার প্রচারণা চালানো হয়। এ সময় তারা হ্যান্ড মাইকে বিনা প্রয়োজনে ঘর থেকে বের হবেন না ,বাইরে গেলে মাস্ক ব্যবহার করুন , হাচি বা কাশি দেওয়ার সময় টিস্যু বা কাপড় দিয়ে নাক – মুখ ঢেকে রাখুন, অপরিষ্কার হাতে চোখ, মুখ ও নাক স্পর্শ করবেন না, নিয়মিত সাবান ও পানি দিয়ে ভালো করে হাত ধৌত করুন, বিদেশ থেকে আসা লোকজনের সাথে মেলামেশা করবেন না এবং তাদেরকে ১৪ দিন পর্যন্ত ঘরের মধ্যে কোয়ারেন্টাইন এ থাকার পরামর্শ দিন , কোলাকুলি ও হাত মেলানো থেকে বিরত থাকুন, আতঙ্কিত না হয়ে সবাইকে সচেতন করতে অনুরুধ করেন।

সিপিপির সদস্যরা জানান, বেজ্ড পরে নির্দিষ্ট নিয়ম মেনেই করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে সচেতন করার জন্য বিভিন্ন জায়গা ও বাজারে মাইকিং করা হয়েছে।

ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচি (সিপিপি) উপজেলা কর্মকর্তা মো. আব্দুল মতিন জানান, উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইফুল ইসলামের নির্দেশে ঘূর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচির ভলেন্টিয়ারেরা প্রায় এলাকায় করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে এওয়ারনেস করা হয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •