ধর্ম ডেস্ক:
প্রাণঘাতী মহামারির কারণে নাক ও মুখে মাস্ক ব্যবহার করা এবং হাত জীবানুমুক্ত করতে হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবহার করার সর্বোচ্চ সতর্কতামূলক পরামর্শ দিয়েছে দেশের স্বাস্থ্য বিভাগ। মাস্কের ব্যবহার না করলে প্রশাসনিকভাবে অর্থদণ্ডের মতো শাস্তিও দেয়া হচ্ছে।

প্রশ্ন ওঠেছে যে, নামাজে মাস্ক ব্যবহার করা যাবে কি না? আবার অ্যালকোহল সমৃদ্ধ হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করা যাবে কিনা?

‘হ্যাঁ’, পরিস্থিতির বিবেচনায় নামাজে মাস্ক ব্যবহার করা যাবে এবং জীবানুনাশক হ্যান্ড স্যানিটজাইরও ব্যবহার করা যাবে।

>> মাস্ক পরে নামাজ

স্বাভাবিক অবস্থায় মাস্ক পরে নামাজ পড়া যাবে না। কারণ-
মাস্ক ব্যবহার করলে নাক ও মুখসহ চেহারার প্রায় অর্ধেকের বেশি অংশ ঢেকে যায়। আর নামাজের জন্য হুকুম হলো নারী-পুরুষ উভয়ের জন্য নামাজের সময় চেহারা ঢেকে রাখা মাকরূহ। তাই স্বাভাবিক অবস্থায় মাস্ক পরে নামাজ পড়া যাবে না। হাদিসে এসেছে-
হজরত আবু হুরায়রা রাদিয়াল্লাহু আনহু বর্ণনা করেন, ‘রাসুলুল্লাহ সাল্লল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম নামাজরত অবস্থায় চেহারা ঢাকতে নিষেধ করেছেন।’ (আবু দাউদ, নাসাঈ)

তবে ইমাম নববি রহমাতুল্লাহি আলাইহি বলেছেন, ‘নামাজে মাস্ক ব্যবহার মাকরূহ হলেও নামাজ সহিহ হয়ে যাবে।’

তবে শরিয়ত সমথিৃত কোনো সমস্যার কারণে চেহারা ঢেকে নামাজ পড়লে বা মাস্ক ব্যবহার করে নামাজ পড়লে তা মাকরূহ হবে না। কোনো ওজরের কারণে পুরুষ-নারীর চেহারা ঢাকতে হলে বা নারীর ক্ষেত্রে নামাজের সময় কোনো গায়রে মাহরাম এসে গেলে আর তাতে চেহারা ঢাকলে তাতে নামাজ মাকরূহ হবে না।

সুতরাং প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের কারণে মাস্কের ব্যবহার বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এক্ষেত্রে সংক্রমণ ব্যধি করোনা রোধে মাস্ক পরে নামাজ পড়লে তাতে নামাজ মাকরূহ হবে না।

>> হ্যান্ড স্যানিজটাইজার ব্যবহার

প্রাণঘাতী মহামারি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে মুক্ত থাকতে অ্যালকোহল মিশ্রিত হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহারও জায়েজ৷

কেননা তাতে যে অল্প পরিমান অ্যালকোহল ব্যবহার করা হয় তাে একদিকে যেমন নেশা সৃষ্টিকারী নয়, আবার হ্যান্ড স্যানিটাইজারে ব্যবহৃত অ্যালকোহল-এর কোনো অস্তিস্তও তাতে বিদ্যমান থাকে না।

যে বস্তুতে অ্যালকোহল ব্যবহার করলে অ্যালকোহলের অস্তিত্ব থাকে না তা ব্যাবহারে ইসলামে বাধা নেই।

তাছাড়া জরুরি প্রয়োজনে ওষুধ হিসেবেও অ্যালকোহলের ব্যাবহারের সুযোগ রয়েছে ইসলামে। অতএব করোনা সংক্রমণ রোধে অ্যালকোহলযুক্ত হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করতে কোনো দোষ নেই।

সুতরাং করোনার এ প্রাদুর্ভাবের সময় জনসচেতনতা রক্ষায় এবং সংক্রামক ব্যধি থেকে মুক্ত থাকতে মাস্ক ও হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ব্যবহার নিশ্চিত করা সবার জন্য খুবই জরুরি।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •