সিবিএন ডেস্ক:

হোম কোয়ারেন্টিন শেষে গোলাম মোস্তফা (৬০) নামে মালয়েশিয়া ফেরত এক ব্যক্তি মারা গেছেন। উপজেলা প্রশাসন বলছে, মৃত গোলাম মোস্তফার করোনার কোনও লক্ষণ ছিল না। তিনি স্ট্রোক করে মারা গেছেন।

গোলাম মোস্তফা যশোরের ঝিকরগাছা উপজেলার বাঁকড়া ইউনিয়নের উজ্জ্বলপুর গ্রামের বাসিন্দা এবং ওই ইউনিয়নের ৮ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য ছিলেন। তিনি মালয়েশিয়ায় শ্রমিক পাঠানোর কাজও করতেন।

বাঁকড়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান নেছার আলী সাংবাদিকদের জানান, গোলাম মোস্তফা মালয়েশিয়ায় শ্রমিক পাঠানোর ব্যবসা করতেন। এ জন্য তিনি প্রায়ই মালয়েশিয়ায় আসা-যাওয়া করতেন। সর্বশেষ গত ১৪ মার্চ মালয়েশিয়া থেকে দেশে ফেরেন। এরপর থেকে উপজেলা প্রশাসনের নির্দেশে তিনি হোম কোয়ারেন্টিনে ছিলেন। ২৯ মার্চ হোম কোয়ারেন্টিন শেষে আজ সোমবার সকালে তিনি বাঁকড়া বাজারের বাসা থেকে তার গ্রামের বাড়ি উজ্জ্বলপুরে যান। সেখান থেকে ফিরে নিজ বাসায় অসুস্থ হয়ে তিনি মারা যান। বিষয়টি তাৎক্ষণিক উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও স্বাস্থ্য কর্মকর্তাকে জানানো হয়। পরীক্ষা করে তারা জানিয়েছেন, গোলাম মোস্তফা স্ট্রোক করে মারা গেছেন। এর আগেও তার দুইবার স্ট্রোক হয়েছে।

ঝিকরগাছা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সুমী মজুমদার বলেন, হোম কোয়ারেন্টিনে থাকা অবস্থায় গোলাম মোস্তফার করোনা আক্রান্তের কোনও লক্ষণই ছিল না। তবু মৃত্যুর পর চিকিৎসকরা তার প্রাথমিক পরীক্ষা করেছেন। স্ট্রোকজনিত কারণে তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •