মুহাম্মদ আবু সিদ্দিক ওসমানী :

কক্সবাজার জেলার ৮ উপজেলার মোট ১৫ হাজার হতদরিদ্র, গরীব পরিবারের জন্য ২০ কেজি করে মোট ৩ শত মে. টন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। এসব ত্রানের চাল রোববার ২৯ মার্চ থেকে বিভিন্ন উপজেলায় বিতরণ শুরু হয়েছে। এছাড়া সরকারের বরাদ্দকৃত মোট ১৩ লক্ষ ২ টাকা সোমবার ৩০ মার্চের মধ্যে পরিবার অনুপাতে বন্ঠন করে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাদের কাছে পাঠানো হবে। কক্সবাজারের জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেনের সার্বিক নিদর্শনায় ভয়াবহ করোনা ভাইরাসজনিত অদ্ভুত পরিস্থিতিতে এ ত্রাণ সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে।

কক্সবাজার জেলা ত্রাণ ও পূণর্বাসন কর্মকর্তা মোঃ মাহবুব আলম সিবিএন-কে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। জেলা ত্রাণ ও পূণর্বাসন কর্মকর্তার দেওয়া তথ্য মতে, প্রতি পরিবারকে ২০ কেজি করে চাল দেওয়া হবে। বরাদ্দকৃত চালের মধ্যে কক্সবাজার সদর উপজেলার ৩৭৫০ পরিবারের জন্য ৭৫ মে. টন, চকরিয়া উপজেলার ২২৫০ পরিবারের জন্য ৪৫ মে. টন, মহেশখালী উপজেলার ১৭০০ পরিবারের জন্য ৩৪ মে. টন, কুতুবদিয়া উপজেলার ১৬০০ পরিবারের জন্য ৩২ মে. টন, পেকুয়া উপজেলার ১২০০ পরিবারের জন্য ২৪ মে. টন, রামু, উখিয়া ও টেকনাফে প্রতিটি উপজেলার জন্য ১৫০০ পরিবার করে মোট ৪৫০০ পরিবারের জন্য ৯০ মে. টন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

বাণিজ্যিক ব্যাংক গুলো বন্ধ থাকায় নগদ টাকা উত্তোলন করতে নাপারায় সোমবার ৩০ মার্চের মধ্যে প্রতিটি উপজেলায় পরিবার অনুপাতে নগদ টাকা বন্ঠন করা হবে।

জেলা ত্রাণ ও পূণর্বাসন কর্মকর্তা মোঃ মাহবুব আলম সিবিএন-কে আরো জানান, হতদরিদ্র, নিন্মআয়ের পরিবারকে এ ত্রাণ সহায়তা দেওয়া হবে। ৪৭০ মে. টন বরাদ্দকৃত চালের মধ্যে আপাতত ৩০০ মে. টন চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। অবশিষ্ট ১৭০ মে. টন চাল আপদকালীন সংকটে জেলা প্রশাসক মোঃ কামাল হোসেনের নির্দেশনায় বরাদ্দ করা হবে। করোনা ভাইরাস সংকট মোকাবেলায় সরকার প্রথম কিস্তিতে ১২ লক্ষ নগদ অর্থ বরাদ্দ দিয়েছে। জেলা প্রশাসনের ত্রাণ ও পূণর্বাসন তহবিলে আগে থেকে থাকা ১ লক্ষ ২ হাজার টাকা সহ মোট ১৩ লক্ষ ২ হাজার টাকা করোনা ভাইরাসজনিত সংকটে নিন্মআয়ের পরিবারদের মাঝে বিতরণ করা হবে। কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের পক্ষে অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান মোল্লা ত্রাণ ও নগদ অর্থ বিতরণ কাজ সরাসরি তদারকি করছেন বলে সিবিএন-কে জেলা ত্রাণ ও পূণর্বাসন কর্মকর্তা মোঃ মাহবুব আলম জানিয়েছেন।

তিনি আরো জানান, জেলা প্রশাসনের ত্রাণ ও পূণর্বাসন তহবিলে আগে থেকে মজুদ থাকা কিছু শুকনো খাবার ১৫০ টি পরিবারের মাঝে জেলা প্রশাসক ও জেলা করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ সংক্রান্ত কমিটির আহবায়ক মোঃ কামাল হোসেন রোববার ২৯ মার্চ স্বশরীরে হতদরিদ্র পরিবারের কাছে গিয়ে বিতরণ করেছেন।

এদিকে, কক্সবাজার জেলা প্রশাসনের নির্ভরযোগ্য একটি সুত্র জানিয়েছেন, করোনা ভাইরাসজনিত সংকটে কক্সবাজারের হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে বিতরণের জন্য সরকারের উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে আরো বরাদ্দ চেয়ে ইতিমধ্যে চাহিদাপত্র প্রেরণ করা হয়েছে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •