বিশেষ প্রতিবেদকঃ

সারা বিশ্বের মত বাংলাদেশ ও আজ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত । করোনা ভাইরাস থেকে বাঁচার জন্য স্বাস্থ্য সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সরকারের পাশাপাশি কাজ করছে দেশের প্রতিটা স্বাস্থ্য সংস্থা সহ সকল সংগঠন ।

বিশেষজ্ঞরা নিশ্চিত করেছেন যে করোনা ভাইরাস একজন মানুষের দেহ থেকে আরেকজন মানুষের দেহে ছড়াতে পারে।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তির হাঁচি-কাশির সময় তার নাক ও মুখ দিয়ে যে জলীয় কণা বা ড্রপলেট বাতাসে বের হয়ে আসে তার মাধ্যমে কোভিড-১৯ ছড়িয়ে পড়তে পারে।

বিজ্ঞানীরা বলছেন, মাত্র একবারের কাশি থেকেই বের হতে পারে এরকম ৩০০০ ড্রপলেট। ড্রপলেটের এই কণা গিয়ে পড়তে পারে আরেকজনের গায়ে, কাপড়ে এবং আশপাশের জিনিসের উপর। তবে কিছু ক্ষুদ্র কণা থেকে যেতে পারে বাতাসেও।

তেমনি কক্সবাজার বিজিবি ক্যাম্প সিকদার পাড়ার হাজার পাঁচেক মানুষ তাদের যাতায়তের পথে প্রতিদিন একটি বড় ডাস্টবিন বা ময়লার স্তুপের পাশ দিয়ে অতিক্রান্ত করেন ।

এই বড় ময়লার স্তুপ নিয়ে বারবার কক্সবাজার পৌরসভার কাছে জানানো হলেও তারা এর কোন প্রতিকার করেননি বলে জানান স্থানীয় জনগন । যার ফলে বিজিবি ক্যাম্প সিকদার পাড়া , মল্লিক পাড়া , বড়ুয়া পাড়া সহ উক্ত রাস্তায় চলাচলকারী সকল মানুষের স্বাস্থ্য ঝুঁকি দিন দিন বাড়ছে । ময়লার স্তুপে শুধু মাত্র সেই এলাকার ময়লা নয় বরং বড় বড় ময়লার গাড়ি এসে কয়েক স্থানের ময়লা আবর্জনা ফেলা হয় এই জায়গায়।

এই বিরাট ময়লার স্তুপ শুধু মাত্র দূর্গন্ধ ছড়াচ্ছে নাহ বরং এরই সাথে ছড়াচ্ছে বহু রোগ জীবাণু । আশেপাশের মানুষ প্রচন্ড রকম আতঙ্কে রয়েছেন এই ময়লার স্তুপের কারনে তাদের পরিবেশে করোনা ভাইরাস সহ অন্যান্য রোগ সংক্রমিত হবে বলে ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •