কুতুবদিয়া প্রতিনিধি:

কুতুবদিয়া উপজেলায় বড়ঘোপ ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওর্য়াড দক্ষিণ অমজাখালী আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল মান্নানের বাড়িতে হামলা অভিযোগ পাওয়া গেছে। বসতবাড়ির জায়গা নিয়ে বিরোধের জের ধরে এই হামলা করা হয়। এই ঘটনায় তার স্ত্রী ফরিদা বেগম (৪২) গুরতর আহত হয়েছে। শুক্রবার (২৭ মার্চ) সকল নয়টায় এ ঘটনা ঘটে।

এই সময় তাকে উদ্ধার করে কুতুবদিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সক্সে নেয়া হলে আঘাত গুরুতর হওয়াতে কর্তব্যরত চিকিৎসক সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়।

আবদুল মান্নান জানান, তার প্রতিপক্ষ মোক্তার আহমদ সাথে দীর্ঘদিন ধরে বাড়ির জায়গা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। পূর্ব বিরোধের জের ধরে মোক্তার আহমদ এবং তার পুত্র জফার আলম, মোরশেদ আলম, খোরশেদ আলম, রমজান আলী, আদর মিয়া ও আবদুল মন্নানের স্ত্রীর সাথে কথা কাটাকাটি শুরু হয়। এক পর্যায়ে লাঠিসোটা নিয়ে মারপিটে লিপ্ত হয় মোক্তার আহমদ এবং তার পুত্ররা। এতে আমজাখালী ৪নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সভাপতি আবদুল মান্নানের স্ত্রী ফরিদা বেগম (৪২) আহত হন। তাকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হয়। অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সদর হাসপাতালে  প্রেরণ করা হয়েছে।

এই বিষয়ে কুতুবদিয়া থানার ওসি দিদারুল ফৌরদোস বলেন, এ ধরনের খবর শুনেছি। তবে কোন পক্ষ থেকে অভিযোগ করা হয়নি। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
  •  
  •